বাংলা সিরিয়াল

একেবারে ধুমতানা না না কান্ড ধুলোকনাতে! তিতির না ফুলঝুরি কাকে সিঁদুর পড়ালো লালন? আদেও সিঁদুর নাকি লিপস্টিক? ধুলোকণার ট্র্যাক দেখে চরম খিল্লি হচ্ছে নেট মাধ্যমে

বর্তমানে বিনোদন জগতের অন্যতম একটি অংশ হলো ধারাবাহিক। স্টার জলসা জি বাংলা বেশ কয়েকটি ধারাবাহিক রয়েছে যা দর্শক মহলে বেশ জনপ্রিয়। তার মধ্যে একটি হলো স্টার জলসার “ধুলোকনা”। ধারাবাহিকের লালন আর ফুলঝুরির গল্প বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। এই ধারাবাহিকে লালনের চরিত্রে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে অভিনেতা ইন্দ্রশিস লাহিড়ী এবং ফুলঝুরির চরিত্র দেখতে পাওয়া যাচ্ছে অভিনেত্রী মানালি দেকে। ধারাবাহিকের শুরু থেকেই এই দুই চরিত্রের জীবনের লড়াই আর তারপর একে অপরের প্রতি ভালোবাসা সবটাই বেশ এনজয় করেছেন দর্শক। এখনো পর্যন্ত টিআরপি বেশ ভালই ধরে রাখতে পেরেছে এই ধারাবাহিক।

তবে সাম্প্রতিককালে ধারাবাহিকে যা ট্রাক চলছে তা খুবই হাস্যকর। এই ট্রাক শুরু হওয়ার পর থেকেই রীতিমতো সোশ্যাল মিডিয়াতে চর্চা হচ্ছিল এই ধারাবাহিকের। যা সব ঘটনা দেখানো হচ্ছে তা নিয়ে নেটটিজেন্দের মধ্যে বেশ বিতর্ক ও সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। লালনের ডাক্তারের মেয়ে তিতিরের সাথে বিয়ে হওয়া নিয়ে বেশ মতবিরোধ ছিল সোশ্যাল মিডিয়ার কিছু অংশে নেটিজেন্দের মধ্যে। এবার রিসেন্ট এপিসোড নিয়েও বেশ সমালোচনা হচ্ছে।

সম্প্রতি ধারাবাহিক চলছে লালন আর তিতিরের বিয়ের ট্রাক। দেখানো হচ্ছে লালন তার সমস্ত স্মৃতিশক্তি হারিয়ে ফেলেছে। তার মা বাবা এমন কি ফুলঝুরি কেউ মনে পড়ছে না তার। কিন্তু ডাক্তার আপ্রাণ চেষ্টা করছে যেন সে সবকিছু ফিরে পায়। এদিকে ডাক্তারের বাড়িতে লালন আশ্রিত হিসেবে থাকায় ডাক্তারের বউ তাকে নিজের ছেলের মতো ভালোবেসে ফেলেছে আর সাথেই ডাক্তারের মেয়ে তিতির তাকে বিয়ে করতে চায়। এসব করতে গিয়েই বিয়ের আসরে এসে উপস্থিত হয় সকলে। কারণ সবাই ভেবেছিল যে সিঁদুর পড়াতে গেলে ফুলজুরির কথা মনে পড়ে যাবে লালনের। বিয়ের আসরে ও ডাক্তার বাবু জিজ্ঞাসা করে যে সে কাকে সিঁদুর পড়াতে চায়? তিতির না ফুলঝুরি? কিন্তু এত কিছু ঘটানোর কোন ফল হয় না।

আর গল্পের এই সব প্রবাহমানতা দেখেই হেসে লুটোপুটি খাচ্ছেন দর্শক। খিল্লি করে কেউ বলছেন, “লালনের প্রথম পক্ষের স্ত্রী দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রীর কষ্টের কথা ভেবে তৃতীয় পক্ষের স্ত্রীকে আটকাতে উঠে পড়ে লেগেছে। কি জটিল ব্যাপার”। আরো একজন লিখছেন, “যেন ভারত পাকিস্তান ম্যাচ চলছে। আর সবাই অপেক্ষা করছে কখন এম এস ধোনি একটা ৬ মারবে”। এমনই আরো নানান খিল্লি করা হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে।

Back to top button