বাংলা সিরিয়াল

অহংকারী হলেও মেয়েকে পাগলের মতো ভালোবাসতেন, মজাদার চরিত্র নন্দিনীর বাবা এসারকের মৃত্যু মানতে পারছেন না দর্শকরা! শ্বশুর জামাইয়ের মজাদার ঝগড়া মিস করে গেলেন বলে হাহুতাশ তারা

স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক নবাব নন্দিনী তে দেখা যায় যে নন্দিনীর বিয়ের আগেই পুরোপুরি দেউলিয়া হয়ে যায় নন্দিনীর বাবা এস আর কে। মেয়ের বিয়ে দেওয়ার টাকাটুকু পর্যন্ত তার কাছে ছিল না, এমন সময় তার মেয়ে নন্দিনী নিজের বিয়ের গয়না বিক্রি করে টাকা তুলে দেয় বাবার হাতে আর দোকান থেকে কুড়ি হাজার টাকার নকল গয়না কিনে আনে আর সেই পড়ে বিয়ের মন্ডপে উপস্থিত হয়।

এরপর বিয়ের রাত্রে যখন বরপক্ষ সব জানতে পেরে তাদের ক্রমাগত হেনস্থা করতে শুরু করে তখন নন্দিনীর হবু বর অর্ণব একবারের জন্য উঠেও প্রতিবাদ করে না একবারের জন্য সাপোর্ট করে না। এতে নন্দিনী বুঝে যায় তার কী করা উচিত সে তখন সবার সামনে জানায় যে এরকম মেরুদণ্ডহীন একটি ছেলেকে সে বিয়ে করবে না। নিজের বিয়ে সে নিজেই ক্যান্সেল করে দেয়। এরপর ব্যাংকের লোক এসে জানাই নন্দিনীর বাবা তাদের বাড়িটা বন্ধক রেখেছিল কিন্তু সময় মত টাকা শোধ দিতে পারেনি তাই ব্যাংকের লোক এই বাড়ি নিয়ে নেবে, অর্থাৎ নন্দিনীর বাবা এখন পুরোপুরি দেউলিয়া হয়ে গেছে। আর এই সমস্ত ঘটনা শুনে নন্দিনীর বাবা অজ্ঞান হয়ে পড়ে যায় নন্দিনী ছুটে গিয়ে তার বাবাকে ধরে কিন্তু এত দূর পর্ব দেখেও দর্শকরা অনুমান করতে পারেননি এরপর কি ঝটকা পেতে চলেছেন তারা? তারা ভেবেছিলেন এসআরকে হয়তো অসুস্থ হয়ে পড়বেন!

কিন্তু তাদেরকে চমকে দিয়ে দেখা গেল নন্দিনীর বাবা এসআরকে মারা গেলেন! এত অল্প সময়ের মধ্যেই এই চরিত্রটি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল আর এত তাড়াতাড়ি এই চরিত্রটি পর্দা থেকে বিদায় নিল যে সকলের মন খারাপ হয়ে যায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকেই লেখেন যে তারা এই বিষয়টি মেনে নিতে পারছেন না। এসআরকের মৃত্যুতে শ্বশুর জামাইয়ের সুন্দর ঝগড়ার দৃশ্য দেখার হাত থেকে তারা বঞ্চিত হলো!

সোশ্যাল মিডিয়ায় একজন নেটিজেন আবার ক্যাপশন দিয়ে লিখেছেন,খুব হৃদয়স্পশী পর্ব আজ নবাব নন্দিনীতে। হয়ত নন্দনীর বাবার খুব অহংকার,কিন্তু সে মেয়েকে পাগলের মতো ভালোবাসে!আজ মারা গেল নন্দিনীর বাবা ,নন্দিনীর হাহাকার!কেমন হবে বাবার একমাত্র আদরে মেয়ে রাজকন্যা নন্দিনীর পথ চলা?”

Back to top button