বাংলা সিরিয়াল

“যে বেশি পয়সা দেবে” – অ্যাঙ্কারিং না কমেন্ট্রি এর উত্তরে সপাটে উত্তর দিলেন মহারাজা, সৌরভ এর উত্তরে সোশ্যাল মিডিয়া বলছে দাদা রকড, অরুণিমা শকড

জি বাংলার অন্যতম জনপ্রিয় নন ফিকশন শো “দাদাগিরি”। দীর্ঘদিন ধরে এই শোটির সাথে ওতপ্রোত ভাবে জড়িয়ে রয়েছেন আমাদের “প্রিন্স অফ ক্যালকাটা”। এই শোতে মহারাজার উপস্থিতি যেন একটি বর্ণময় অধ্যায় দর্শকদের জন্য। সৌরভ নিজেই ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়কের ইমেজ ভেঙেছেন এই মঞ্চে। নিজেকে নতুন ভাবে তুলে ধরেছেন দর্শকমহলের সামনে। এবার দাদাগিরির মঞ্চে একটি মজার ক্লিপ ভাইরাল হলো সোশ্যাল মিডিয়ায়।

দাদাগিরি সিজন এইট এর একটি ভিডিও ক্লিপ ইতিমধ্যেই ভাইরাল হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। যেখানে অবশ্যই হোস্ট হিসেবে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে আমাদের প্রাক্তন বিসিসিআই প্রেসিডেন্টকে। এবং অতিথি হিসেবে উপস্থিত আছেন সোহম, সোনালী, সুদীপ্তা, অরুণিমারা। এই ভিডিও ক্লিপের দাদার সাথে সদস্যদের কথোপকথন বেশ মজার। আর সেই কারণেই বলা যায় সোশ্যাল মিডিয়াতে বড্ড বেশি ভাইরাল হচ্ছে ভিডিওটি।

এদিন অরুনিমা দাদাকে কিছু প্রশ্ন করেন যেখান থেকে যেকোনো একটি বেছে করে নিতে হবে। অরুণিমার বলেন, “তোমাকে বেশকিছু প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করব, চটপট উত্তর দিতে হবে”। “ইলিশ না চিংড়ি?”, “লাল গোলাপ না হলুদ গোলাপ?” , “ধুতি না ডেনিম?” , “সত্যিজিৎ রায় না ঋত্বিক ঘটক?” যদিও এসব প্রশ্নের একদম সোজাসুজি উত্তর দিয়েছেন মহারাজা। সৌরভ এর উত্তর, “চিংড়ি” , “লাল গোলাপ” , “ডেনিম” , “সত্যজিৎ রায়”। যদিও এসবের মধ্যে শেষ প্রশ্নের উত্তরে নজর কেড়েছেন দর্শকের। শেষ প্রশ্নের অরুণিমা জিজ্ঞাসা করেন “অ্যাঙ্কারিং না কমেন্ট্রি?” এই প্রশ্নের উত্তর এই বিন্দুমাত্র কিন্তু না করে মহারাজা স্ট্রেট বলেন “যে বেশি পয়সা দেবে”।

আমরা সকলেই জানি, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের মহারাজার শাসনকাল সমাপ্ত হয়েছে। সৌরভের সিএবির নির্বাচন এখনো না হওয়ায় তিনি সভাপতি দায়িত্বভার গ্রহণ করতে পারেননি। এতসবের মধ্যে ইতিমধ্যেই সৌরভের ক্যারিয়ার নিয়ে শুরু হয়ে গেছে তাঁর বিভিন্ন রকমের জল্পনা সে আমরা আগেই দেখেছি। তবে এসবের মাঝেও যে দাদাগিরির মঞ্চ বহাল থাকবে সে কথা দাদা আগেই জানিয়েছিলেন। এদিনে দাদার গুগলি তে একেবারে নাজেহাল হয়েছেন অভিনেত্রী অরুনিমা তেমন কিছু উত্তর দিতে পারেননি তিনি। এসবের মধ্যে এই মঞ্চেই অরুনিমার চোখের মাইনাস পাওয়ার নিয়ে বেশ কিছু কথা হয়।

মহারাজা নিজেও চশমা পড়েন। তাই অরুনিমার চোখে মাইনাস পাওয়ার থাকার পরেও অরুনিমা চশমা পরেন না জেনে বেশ ভালো মতই তাঁকে চেপে ধরেন মহারাজা। মহারাজা প্রশ্ন করেন, “ভালো দেখতে মহিলা চোখে পাওয়ার থাকলেও চশমা পরেন না কেন? চমশা পরলে অসুবিধা কোথায়?” অরুণিনা বলেন, “চমশা পরলে গাড়ি চালাতে অসুবিধা হয়, উলটো দিক থেকে ডিপার মারলে সমস্যা হয়”। এসব যুক্তি উড়িয়ে দিয়ে সৌরভ বলেন, “ডিপার, বিপার সব অজুহাত, সোজাকথা চশমা পরলে দেখতে ভালো লাগবে না তাই পরে না”।

Back to top button