বাংলা সিরিয়াল

গুলি খাওয়ার শ্যুট করতে গিয়ে হাতে চোট পেয়েছে সৌমিতৃষা তবুও তার শুটিং থামেনি! শুনে ভক্তরা বলছে ‘এই কারণেই আমাদের মিঠাই সবার সেরা’

জি বাংলার অত্যন্ত জনপ্রিয় ধারাবাহিক হলো মিঠাই। অসংখ্য বার বঙ্গসেরা হাওয়া এই ধারাবাহিকের নায়িকা সৌমিতৃষা কুন্ডুকে সকলেই খুব ভালোবাসেন। মিঠাই খ্যাত এই অভিনেত্রীর তার কাজের প্রতি অসম্ভব ভালোবাসা আর ডেডিকেশন রয়েছে। এর আগে একবার শুটিং করতে গিয়ে পায়ে গুরুতর চোট পাওয়া সত্ত্বেও শুটিং কন্টিনিউ করে রবীন্দ্রনাথ তো করেছিল সৌমিতৃষা- তখনই বোঝা গিয়েছিল কাজের প্রতি কি অসম্ভব ভালোবাসা তার! সম্প্রতি আবারও সেই একই ঘটনা ঘটলো।

আমরা বাইরে থেকে হয়তো ভাবি এই রুপোলি পর্দার জগৎটা খুব সুন্দর কত গ্ল্যামারাস কত নিত্য নতুন চরিত্র এখানে কাজ করা যায়। কিন্তু সত্যি তো এটাই এই কাজটা করা খুব একটা সহজ নয়, বরং ভীষণ কঠিন। নিজেদের ব্যক্তিগত কষ্ট নিজেদের ব্যক্তিগত যন্ত্রণা সমস্ত কিছু আড়াল করে তাদের কাজ করতে হয়। সেভাবে তাদের কাজে ছুটি থাকে না তাই পারিবারিক কোনো অনুষ্ঠানে তারা সেভাবে যোগ দিতে পারে না। হাতে পায়ে আঘাত লাগলেও তাদের শুটিং করতে হয়। কিছুদিন আগে যেমন মিঠাই ধারাবাহিকের তোর্সা শুটিং করতে করতে চোট পেয়েছিল কিন্তু সেই অবস্থাতেও সে শুটিং করেছে।

সম্প্রতি রুদ্র নিপার রিসেপশনের শুটিং চলছে।এই শ্যুটিং পর্বে অভিনেত্রী সৌমিতৃষা কুন্ডুর হাতে চোট লেগেছে আর সেই চোট লাগার ছবি সে ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছে। ছবিতে দেখা যাচ্ছে যে তার ডান হাত কেটে রক্তারক্তি অবস্থা হয়েছে এবং দেখে মনে হচ্ছে তার হাতের কিছুটা অংশ পুড়েও গিয়েছে। কিন্তু এই চোট নিয়েও দিনে ১৪ থেকে ১৫ ঘণ্টা টানা কাজ করতে হচ্ছে তাকে। এই ছবি দেখে বোঝা যায় সত্যি কতটা কষ্ট করে অভিনেতা অভিনেত্রীরা শুটিং করেন।

Back to top button