বাংলা সিরিয়াল

রেস্টুরেন্টে উর্মির পাশে বসে টাকা চুরি করে নিল রিনি, ঊর্মিকে বিপদে ফেলার ফন্দী আটঁছে রিনি ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’ ধারাবাহিকে নতুন চমক

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক গুলির মধ্যে অন্যতম হলো ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’ খুব অল্প সময়ের মধ্যেই দর্শকের মনে জায়গা করে নিয়েছে। সাত্যকি ও উর্মির মিষ্টি লাভ স্টোরি ধীরে ধীরে পরিণতি পাচ্ছে। সাত্যকির উপর ধীরে ধীরে বাড়ছে উর্মির অধিকার বোধ।

তাদের খুনসুঁটি, একে অপরের পাশে থাকা সমস্তকিছুই দর্শকের নজর কেড়েছে। TRP তালিকাতে এখনো ভালো স্থান না পেলেও ধীরে ধীরে ভালো জায়গা করে নিচ্ছে এই ধারাবাহিক। এই ধারাবাহিকের পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন স্বর্নেদু সমাদ্দার।

গল্পের শুরুতে দুজনের মধ্যে কোনরকম কোনো মিলমিশ না থাকলেও যতদিন যাচ্ছে উর্মি ও সাত্যকি একে অপরের পরিপূরক হয়ে উঠছে। সম্প্রতি ধারাবাহিকে জন্মাষ্টমীর পুজোর পর্ব দেখানো হয়েছে এবং উর্মি ভগবান শ্রীকৃষ্ণের কাছে তার সাত্যকি বাবুর জন্য প্রার্থনা করেছে, আর ঠিক তারপর দিনই সাত্যকি তার লোনের স্যাঙশন পেয়ে যায়।

আর সেই খুশিতেই উর্মি বাড়ির সকলকে নিয়ে ঘুরতে যেতে চায়। কিছুদিন আগেই রাখি বন্ধন উৎসব উপলক্ষ্যে সাত্যকি উর্মির কাছে তার দাদা কে নিয়ে আসে এবং রাখির উপহার হিসেবে উর্মিকে ৩০,০০০ টাকা দিয়ে যায়। আর সেই টাকা দিয়েই উর্মি পরিবারের সকলের সঙ্গে একটা দিন বাইরে কাটাতে বেরোয়।

বাড়ির সকলে উর্মিকে ভালোবাসলেও একজন উর্মিকে একেবারেই সহ্য করতে পারে না আর সে হলো রিনি। রিনি হলো সাত্যকি দের পাড়ার একটি মেয়ে, ছোটো থেকেই সাত্যকির কাছে পড়তে আসে এবং কোথাও গিয়ে সে সাত্যকি কে পছন্দ করে। তাই জন্যই সাত্যকির পাশে উর্মিকে রিনি একেবারেই সহ্য করতে পারে না, বারবার উর্মির ক্ষতি করতে চায়, উর্মিকে কি করে পদে পদে বিপদে ফেলা যায় সেই ফন্দি আটে। তবে প্রতিবারই অসফল হয়।

পরিবারের সকলকে ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার সময় উর্মি রিনি কেও পরিবারের একজন ভেবে নিয়ে যায়। কিন্তু রেস্টুরেন্টে খেতে বসার সময় ঘটে বিপদ। বিল পেমেন্ট করতে গিয়ে উর্মি লক্ষ করে তার ব্যাগ থেকে সমস্ত টাকা উধাও।

আর এই সমস্ত ষড়যন্ত্র এর মুলে রয়েছে রিনি তা আমরা আগেই ট্রিজার ভিডিও তে দেখেছি। আর এই ভিডিও দেখা মাত্রই সোশ্যাল মিডিয়াতে দর্শকরা তো দারুন ক্ষেপে রয়েছেন, তাদের দাবি এখানে রিনির ভূমিকার কোনো দরকার নেই।

Back to top button