বাংলা সিরিয়াল

‘ওষুধ দিবি কিনা বল’! নিজের মুখে গোটা সারাতে গৌরীর গলা টিপে ধরল শৈল মা, অন্যদিকে ঈশানের পরিবারে তিনজনকে বাঁচিয়েও কারোর মন পেল না সূর্য, টানটান পর্ব গৌরী এলো ধারাবাহিকে

এই মুহূর্তে জি বাংলার(Zee Bangla) অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক গৌরী এলো(Gouri Elo)তে চলছে টানটান পর্ব। প্রত্যেকটা পর্বই এতটাই আকর্ষণীয় যে সিট ছেড়ে উঠতে পারছেন না দর্শক। একটুও মিস করতে চাইছেন না একটা এপিসোড। ইতিমধ্যে ধারাবাহিকে দেখা গিয়েছে গৌরীকে বিপদে ফেলার ফল হাতেনাতে পেয়েছে তার চিরশত্রু শৈল মা(Shoilo Ma)। তার গোটা মুখ ভরে গিয়েছে কালো কালো গোটাতে। হাজার চেষ্টা করেও ব্যর্থ সারাতে শৈল মা।

কোন উপায় না দেখে অবশেষে গৌরীর কাছেই কৃপা ভিক্ষে চাইলো। তবে সোজা পথের মানুষ নয় সে। গৌরীর কাছে সাহায্যটাও চাইল নৃশংস হয়ে। একেবারে গৌরীর শ্বাসনালী টিপে ধরেছে শৈলমা। ওষুধ চাইছে গৌরীর কাছে মুখ সারানোর। গৌরী তাকে জানায় তার এমন কোন ওষুধ জানা নেই। যা শোনার পর আরো বেশি করে তার গলা টিপে ধরেছে সে। অবশেষে উপায় না দেখে গৌরী তাকে কথা দেয় সে তাকে ওষুধ দেবে। এবং বলেই কোনক্রমে তার হাত ছাড়িয়ে প্রাণ বাঁচাতে পালায় সে।

অন্যদিকে ঈশানের পরিবারে ঘটেছে এক বড়সড়ো বিপদ। তার বাবা, মেজো কাকা এবং মেজ কাকিমা একইসঙ্গে গুরুতর আহত হয়। মাথায় চ্যাংড় ভেঙ্গে পড়েছে তাদের। মোটামুটি স্বাভাবিক বলে মনে করছেন না কেউ। তড়িঘড়ি তাদের হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। আর ঈশানকে এই কাজে সাহায্য করেছে সূর্য। সময় মত তাদেরকে হাসপাতালে এনে তাদের ক্ষততে মলম লাগাবার ব্যবস্থা করলেও সূর্যর মনে ক্ষত রয়ে যায়।

কারণ পরিবারের সবার উপকার করলেও কেউ এখনো পর্যন্ত তাকে মেনে নেয়নি। এমনকি তার সাহায্যের কোন দাম পর্যন্ত দেয়নি। যদিও ঈশান পাশে থেকেছি সূর্যের। জানিয়েছে সে না থাকলে এই বিপদ থেকে একা সে কোন ভাবেই তাদেরকে বাঁচাতে পারত না।

Back to top button