বাংলা সিরিয়াল

‘পুরনো মানেই সোনা আর নতুন সবই চারা পোনা’! সোশ্যাল মিডিয়ায় খলনায়িকা রঞ্জাকে নিয়ে মুখ খুললেন ইন্ডাস্ট্রির অভিজ্ঞ অভিনেতা সপ্তর্ষি রায়

গত বছরই জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক গুলোর মধ্যে অন্যতম একটি ছিল রিমলি। এই ধারাবাহিকে রিমলি চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন নবাগতা অভিনেত্রী ইধিকা পাল। এই ধারাবাহিকের মাধ্যমে তিনি দর্শকের মনে বেশ ভালো মতন জায়গা তৈরি করে নিয়েছিলেন। কিন্তু ধারাবাহিকে গল্প দর্শকের বিশেষ পছন্দ না হওয়ার কারণে দিনে দিনে TRP রেটিং কমে যাচ্ছিল। যার ফলে ধারাবাহিক খুব শীঘ্রই বন্ধ হয়ে যায়। ধারাবাহিক বন্ধ হয়ে যাওয়ার কয়েক মাস পরেই আবার জি বাংলার ধারাবাহিকে দেখা যায় ইধিকাকে। বর্তমানে জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক পিলু তে তিনি অভিনয় করছেন নেগেটিভ চরিত্রে। ইধিকা রঞ্জার ভূমিকায় অভিনয় করছেন ধারাবাহিকে। প্রথম থেকেই একটি নেগেটিভ চরিত্রে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। তবে ধীরে ধীরে গল্প যত এগোচ্ছে মল্লারের পাল্লায় পড়ে নিজেকে বদলাতে শুরু করেছে রঞ্জা। মল্লারের অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে এসে পিলুর সাথে হাত মিলিয়েছে আর নিজের করা অন্যায় ধীরে ধীরে বুঝতে পারছে সে।

পিলু ধারাবাহিকে আহিরের বাবার চরিত্রে অভিনয় করছেন ইন্ডাস্ট্রির বহু পুরনো এবং অভিজ্ঞ অভিনেতা সপ্তর্ষি রায়। নিজের অভিনয় দিয়ে দর্শকের দারুণ মুগ্ধ করেছেন তিনি। অন্যদিকে ইধিকার প্রশংসায় সোশ্যাল মিডিয়ায় পঞ্চমুখ তিনি। প্রসঙ্গত ইন্ডাস্ট্রিতে মাত্র দু’বছর হলো কাজ করছে ইধিকা। এই অল্প সময়ের মধ্যেই সে দর্শক এবং অসংখ্য বড় অভিনেতা-অভিনেত্রীদের ভালোবাসা আশীর্বাদ পেয়েছে যাতে আপ্লুত সে।

ফেসবুকে একটি ছবি আপলোড করে ইধিকার প্রশংসা করেছেন সপ্তর্ষি রায় তিনি লিখেছেন “আমরা সাধারণত নতুন প্রজন্মকে নানা বিষয়েই অবজ্ঞা করে থাকি, তাদের সমালোচনা করে থাকি, ভাবি পুরনো মানেই সোনা আর নতুন সবই চারা পোনা! কিন্তু সত্যিই কি তাই? আমি অন্তত তা মনে করিনা৷ আমি প্রতিদিনই নতুন প্রজন্মের কাছ থেকে কিছু না কিছু শিখি! আর অভিনয় তো এক এমন বিদ্যে যার কোনো সিলেবাস হয়না আর হলেও সে সিলেবাসের শেষ বলে কিছু নেই”!

এছাড়াও তিনি লিখেছেন “ছবিতে আমার সঙ্গে যে সুন্দরী অভিনেত্রী কে দেখতে পাচ্ছেন এর নাম ইধিকা পাল, কেবল মাত্র দু’বছর হলো ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করছে কিন্তু ফ্লোরে যত এর কাজ দেখছি তত মুগ্ধ হয়ে যাচ্ছি আমি সৌভাগ্যবান এমন সব নতুন নতুন প্রতিভার সাথে কাজ করার এবং নিজেকে অহরহ আপডেট করার সুযোগ পাচ্ছি।”

Back to top button