বাংলা সিরিয়াল

‘সাবিত্রী দেবী নিজের জীবনের অনেক অজানা কথা জানতে পারবেন লীনা গাঙ্গুলীর সৌজন্যে’! লীনা গাঙ্গুলী সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়ের বায়োপিক তৈরি করছে শুনে শুরু হলো নতুন ট্রোলিং

বাংলা চলচ্চিত্র জগতের কিংবদন্তি অভিনেত্রী সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়। উত্তম কুমারের নায়িকা চরিত্রে অভিনয় থেকে শুরু করে বর্তমান সময়েও যিনি সমান দাপটে অভিনয় করে চলেছেন। এভারগ্রীন সেই সাবিত্রী দেবীর জীবন ঘিরে অনেক রহস্য রয়েছে। সেই সকল রহস্য এইবার সামনে আসবে।

ধন্যিমেয়ে, মৌচাক থেকে শুরু করে ঠাম্মার বয়ফ্রেন্ড সবেতেই সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়ের অভিনয় লাজবাব। সময়ের সাথে সাথে তার অভিনয় যেন আরও বেশি বাস্তবচিত এবং সমসাময়িক কালের হয়ে উঠেছে। আর হবে নাই বা কেন তিনি যে
টলিউড ইন্ডাস্ট্রির চির পরিচিত সেই সাবুদি যার অভিনয় দক্ষতা দেখে মুগ্ধ হতেন স্বয়ং মহানায়ক উত্তম কুমার ও! তবে কর্মজীবনের সাথে সাথে ব্যক্তিগত জীবন নিয়েও সমান আলোচিত হন তিনি। উত্তম কুমারের সাথে তার সম্পর্কের একটি গুঞ্জন শোনা যায়। সাবিত্রী অবশ্য বলেছেন উত্তম কুমার তাকে পছন্দ করতেন। তার বিয়ে উত্তম কুমার ভেঙ্গে দিয়েছেন। সাবিত্রীর ব্যক্তিগত জীবনের কথা জানা গেছে তার আত্ম জীবনী ‘সত্যি সাবিত্রী’তে। কিংবদন্তি অভিনেত্রীর জীবনী এইবার পর্দায় ফুটে উঠবে।

টেলিভিশন জগতের নামী প্রযোজক ও লেখিকা লীনা গঙ্গোপাধ্যায় সাবিত্রী দেবীর জীবনী সামনে আনছেন। লীনা গাঙ্গুলী ও সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায় দুজনেই একটি সংবাদ মাধ্যমকে এই খবর দিয়েছেন। তারা জানিয়েছেন যে ‘সত্যি সাবিত্রী’ অবলম্বনে এইবার নতুন কাজ হবে।

সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায় নিজে সবাইকে বলেন,‘জানেন ‘সত্যি সাবিত্রী’ বই নিয়ে এবার সিনেমা তৈরি হচ্ছে। আমার বায়োপিক তৈরি হচ্ছে। আমার খুব ভালো লাগছে। বেশ আনন্দ হচ্ছে।’- লীনা গাঙ্গুলী এই প্রসঙ্গে বলেন, “আমি এবং শৈবাল (শৈবাল বন্দ্যোপাধ্যায়) মিলে ‘সত্যি সাবিত্রী’ নিয়ে ছবি তৈরি করব। তবে এখনই বলবো না যে এটি সিনেমার আকারেই তৈরি হবে। এটা বলতে চাই না। আমরা ওয়েব সিরিজও তৈরি করতে পারি। সেটা এখনো ঠিক করে উঠতে পারি নি।’

সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়ের বায়োপিক প্রসঙ্গে লীনা গাঙ্গুলী বলেন যে, “ দারুন কিছু একটা হতে চলেছে। আমরা চিত্রনাট্যের কাজ শুরু করে দিয়েছি‌। তবে কাকে কোন চরিত্রে নেওয়া হবে তা এখনো ঠিক হয়নি। সত্যি সাবিত্রী নামটাই রাখা হবে কিনা তাও এখনো ঠিক করা হয় নি।”- যদিও এই খবর প্রকাশ্যে আসতে মানুষ ট্রল‌ও শুরু করে দিয়েছেন। তারা বলতে থাকেন যে ‘এইবার সাবিত্রী দেবী নিজের জীবনের অনেক অজানা কথা জানতে পারবেন লীনা গাঙ্গুলী সৌজন্যে’

Back to top button