বাংলা সিরিয়াল

হকি স্টিক দিয়ে রাহুলের গুন্ডাদের খুব মারলো খড়ি! আবারো খড়ির জন্যই নিজের জীবন ফিরে পেল ঋদ্ধিমান, রাহুলের গুন্ডাদের হাত থেকে বনি এবং খড়ি মিলে উদ্ধার করল ঋদ্ধি এবং তার মা কে

গাঁটছড়া ধারাবাহিকের প্রতিটি এপিসোডে বর্তমানে উত্তেজনায় ভরপুর। প্রতিদিনই কিছু না কিছু নিত্যনতুন চমক থাকছে দর্শকদের জন্য। আর দর্শকরা অপেক্ষা করে থাকে এই ধারাবাহিক দেখার জন্য কারণ ইতিমধ্যেই ঋদ্ধি এবং খড়ির মধ্যে আলাদা রকমের একটা কেমিস্ট্রি তৈরি হচ্ছে। ধীরে ধীরে দুজন দুজনের কাছাকাছি আসে, একে অপরকে বুঝতে শুরু করেছে, দুজন দুজনের বিপদে ছুটে যাচ্ছে। তাই দর্শকদের আগ্রহ যেন আরো দিন দিন বেড়ে চলেছে এই ধারাবাহিক দেখার জন্য। আর তার কারণে টিআরপি তালিকায় প্রথম স্থান দখল করে আছে এই ধারাবাহিক।

বর্তমানে ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে যে দেশের বাড়ি থেকে খড়ি এবং ঋদ্ধি ফিরে আসার পরে ঋদ্ধির ক্ষতি করার জন্য রাহুল ঋদ্ধির পেছনে গুন্ডা লাগায়। যাতে থেকে সেই গুন্ডা ঋদ্ধি কে মেরে হাড়গোড় ভেঙে দিতে পারে। আর রাহুলের এই সমস্ত কাজের কথা দ্যুতি জানে। অন্যদিকে দ্যুতি যে ঋদ্ধির খাবারে পোকা মারার ওষুধ মিশিয়ে ছিল সেইটা জানতে পেরে যাই খড়ি এবং সে দ্যুতি কে বলে যে এই সমস্ত কাণ্ডকীর্তি বাড়ির সকলকে জানিয়ে দেবে। আর দ্যুতি নিজেকে বাঁচানোর জন্য রাহুলের ঋদ্ধিমান কে মারার প্লান এর কথা খড়িতে জানিয়ে দেয়। এই কথা জানতে পেরে খড়ি ছুটে যায় ঋদ্ধির কাছে। সেখানে গিয়ে যথারীতি খড়ি দেখতে পারে রাহুলের লোকেরা ঋদ্ধিমান এবং তার মাকে মাঝ রাস্তায় গাড়ি দাঁড় করিয়ে মারধর করছে।

সম্প্রতি গাঁটছড়া ধারাবাহিকের একটি ফ্যান পেজ থেকে ফেসবুকে একটি ভিডিও ক্লিপ শেয়ার করা হয়েছে এবং সেই ভিডিও ক্লিপে দেখা যাচ্ছে যে খড়ি পৌঁছে যায় ঋদ্ধিমান এর কাছে। সেখানে গিয়ে ঋদ্ধি এবং তার মাকে গুন্ডাদের হাত থেকে বাঁচায়। সঙ্গে আসে বনি এবং তার দলবলকে বনি এবং তার দলবল মিলে সেই গুন্ডাদের উত্তম মধ্যম মারতে থাকে। আর সেখান থেকে ঋদ্ধি এবং তার মাকে বাঁচিয়ে আনে। ঋদ্ধিমান যথারীতি তার মিটিংয়ে চলে যায় এবং তার মা বাড়ি ফিরে আসে। ভিডিওটি ইতিমধ্যেই সকল দর্শকদেরই পছন্দ হয়েছে। অনেকেই ভিডিওটি লাইক করেছে আর কমেন্ট বক্সে একেকজনের প্রতিক্রিয়া একেক রকম। কেউ কেউ বলেছে এই সমস্ত আজগুবি ধারাবাহিকের গল্প। আবার কেউ কেউ খড়ি প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছে। অনেকেই বলেছে বউ যেখানে থাকবে সেখানে সমস্যা কি।

Back to top button