বাংলা সিরিয়াল

TRP তে ১ নম্বরে আসতে চলেছে ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’! অন্যরূপে ফিরছে রিনি, পাশাপাশি ধারাবাহিকের সম্প্রচারের সময়ে এলো আমূল পরিবর্তন

বর্তমানে ধারাবাহিকগুলো প্রত্যেকটি টিআরপি তালিকার দৌড়ে নেমে পড়েছে। কোন ধারাবাহিক কাকে টক্কর দেবে তা নিয়ে সব সময় চলছে রেষারেষি। যার কারণে নতুন নতুন গল্পের ধারাবাহিক আনা হচ্ছে বিভিন্ন চ্যানেলে। এর পাশাপাশি পরিবর্তন করা হচ্ছে ধারাবাহিক এর টাইমিং। আর এবারে পরিবর্তিত হল জি বাংলার জনপ্রিয় একটি ধারাবাহিক এই পথ যদি না শেষ হয় এর টাইমিং। আসলে এই ধারাবাহিক অনেক দর্শকের পছন্দ হলেও টিআরপি তালিকাতে একদমই ভাল ফলাফল নেই এই ধারাবাহিকের। তার জন্যই হয়তো টাইমিং এর পরিবর্তন করা হয়েছে।

সম্প্রতি সামনে এসেছে ধারাবাহিকের নতুন প্রোমো ভিডিও। গতকালই চ্যানেল এর পক্ষ থেকে এই পথ যদি না শেষ হয় ধারাবাহিকের নতুন প্রোমো ভিডিও দেখেছেন সকলে। আর সেই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে যে রবীন্দ্রজয়ন্তী পালনে মেতে উঠেছে গোটা সরকার পরিবার এবং সেখানে উপস্থিত রয়েছে পাড়ার লোক সহ উর্মির বাপের বাড়ির সকল সদস্য এবং হঠাৎ স্টেজে উঠে মাইকে এনাউন্স করে ওর দাদা এবং তখনই সরকার বাড়িতে প্রবেশ করে রিনি। আর রিনির এই প্রবেশের চমকে ওঠে দর্শকেরা কারণ আগে রিনিকে দর্শকেরা যেই রূপে দেখেছিল তার ঠিক উল্টো রূপ নিয়ে ফিরে এসেছে রিনি এবং দর্শকরা বেশ বুঝতে পারছে আবার উর্মি এবং সাত্যকির মাঝে গন্ডগোল সৃষ্টি করতেই রিনি ফিরে এসেছে।

রিনির ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন অভিনেত্রী মিশমী দাস। তবে অভিনেত্রী নিজেই সোশ্যাল মিডিয়ায় কয়েক মাস আগেই জানিয়েছিলেন যে তিনি কিছুদিনের জন্য বিরতি নিতে চান ইন্ডাস্ট্রি থেকে। যার কারণে বেশ কয়েকদিন রিনির ভূমিকায় কাউকেই দেখা যায়নি ধারাবাহিকে। কিন্তু আবার রিনি নিজের ভূমিকায় ফিরে এসেছেন নতুন রূপে নতুন ভাবে। বোঝাই যাচ্ছে এবারের কোমড় বেঁধেই মাঠে নেমেছে রিনি। আসলে আগে রিনির চরিত্র ছিল হাবাগোবা, বোকা কিন্তু মাথায় দুষ্টু বুদ্ধিতে ভরা একটি মেয়ে। কিন্তু বর্তমানে বোঝা যাচ্ছে যে বেশ কড়া ভাবে ভিলেনের চরিত্রে রিনিকে ফুটিয়ে তোলা হবে ধারাবাহিকে।

এছাড়াও প্রমো ভিডিও প্রকাশ্যে আসার দিন আরো একটি চমক নিয়ে আসে এই ধারাবাহিক। এতদিন পর্যন্ত সোম থেকে শুক্র ঠিক রাত দশটার সময় জি বাংলার পর্দায় আমরা দেখতে পেতাম এই পথ যদি না শেষ হয়। কিন্তু এবার থেকে সেই সময় পরিবর্তন হয়ে রাত ন’টার নিয়ে আসা হলো এই ধারাবাহিকে। আগামী ১৬ ই মে থেকে ঠিক রাত নটায় জি বাংলার পর্দায় দেখা যাবে এই পথ যদি না শেষ হয়। টিআরপি তালিকার দৌড়ে ধারাবাহিকে এগিয়ে রাখার জন্যই এই পরিবর্তন করা হয়েছে বলেই অনুমান। অন্যদিকে স্টার জলসার পর্দায় রাত নটায় দেখানো হয় ‘আয় তবে সহচরী’ ধারাবাহিক। এই ধারাবাহিক দর্শকমহলে দারুণ জনপ্রিয়। এবারে দেখার অপেক্ষা আগামী দিনে এই পথ যদি না শেষ হয় ধারাবাহিক আয় তবে সহচরী সঙ্গে কম্পিটিশন করতে পারে কি না। আর কেমন ফলাফল হয় এই সময় পরিবর্তনের জন্য।

Back to top button