বাংলা সিরিয়াল

সুদীপা চ্যাটার্জির রান্নাঘরে উপস্থিত হলেন মহানায়ক সোহম এবং সুস্মিতা! সাহায্য করলেন নুন আর চিনি এগিয়ে দিয়ে, রান্না হলো সফেদ মটন কোর্মা

জি বাংলার অন্যান্য নন ফিকশন শো গুলির মধ্যে একটু অন্যতম শো হল রান্নাঘর। জনপ্রিয়তার শীর্ষে থাকলেও কিছুদিন আগে বেরোনোর টিআরপি রেটিংয়ে সর্বনিম্ন স্থান পেয়েছে এই শো। তবে এসব এখন থাক। এটি এমন একটি শো যেখানে সাধারণ মানুষের পাশাপাশি আসতে পারেন বিভিন্ন তারকারাও। আর খুব স্বাভাবিকভাবেই এই এপিসোড নিয়ে দর্শক বেশ উত্তেজিত থাকেন। এবার রান্নাঘরের একটি এপিসোডে উপস্থিত হলেন সোহম চক্রবর্তী এবং সুস্মিতা চ্যাটার্জি। তাঁরা এসেছিলেন মূলত তাঁদের নতুন ছবি পাকা দেখার প্রমোশনের জন্য। পাশাপাশি একটি নতুন পদ রান্না করা হয়েছে সেদিন এই এপিসোডে।

পুরো সময়টাই বেশ মিষ্টি কথোপকথনে কেটেছে তিন তারকা। আর তারই মাঝে অভিনেতা-অভিনেত্রী করেছেন তাঁদের নতুন ছবির প্রমোশনও। প্রসঙ্গত এই ছবির পরিচালক হলেন প্রেমেন্দু বিকাশ চাকি। মূল চরিত্রে দেখা যাবে সোহম এবং সুস্মিতাকে। এই সিনেমার সংগীত পরিচালক হলেন জিৎ গাঙ্গুলী। মূলত স্ট্রেসড মানুষদের একটু হাসানোর লক্ষ্যই এই ছবির। এই কথা নিজের মুখেই বললেন সোহম। ছবির গানের শুট নিয়ে নিজের মুখে নিজেদের অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন অভিনেতা। আর তারই সাথে বেশ প্রশংসাই করেছেন নতুন রান্নারও।

তবে রান্না ঘরের এই নতুন এপিসোডে নতুন রান্নাটি করেছেন সঞ্চালিকা সুদীপা নিজেই। আর তাঁর পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন সোহম সুস্মিতা। সোহম হাতে হাতে মশলা এ গিয়ে দিলেও সুস্মিতাকে হাত লাগাতে দেখা যায়নি রান্নার কাজে। যদিও এই নতুন এপিসোডের প্রমোতেও বাজিমাত করতে পারেনি রান্নাঘর। দর্শকের বয়কট মনোভাব রান্না ঘরের প্রতি এখনো সমানই রয়েছে। যা জি বাংলার এই প্রমোর কমেন্ট সেকশন থেকে স্পষ্ট। একজন কমেন্টে গিয়ে স্পষ্ট লিখেছেন, “যারা রান্নাঘরে রান্না করতে আসে তাদের তো রান্না করতেই দেন না উনি । উনি নিজেই রান্না করেন আর আগে আগে নিজেই চাখেন”। এমনই আরো বহু কমেন্ট দেখা গিয়েছে কমেন্ট বক্সে। এর থেকে স্পষ্ট যে দর্শকের সুদীপার প্রতি রাগ এখনো কমেনি।

Back to top button