বাংলা সিরিয়াল

মিঠাইয়ের নতুন পর্বে আছে দর্শকদের জন্য এক বড়সড়ো চমক, বিবাহ বার্ষিকী উপলক্ষে মিঠাইকে শাড়ি পরাবে সিড! তাও কি ফাঁকা বাড়িতে? ভালোবাসার পর এবার কি কাছে আসার পালা?

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক “মিঠাই”। যদিও এর আগেও বলেছি আবারো বলছি শুধু জি বাংলা বললে ভুল হবে গোটা বাংলার বর্তমানের সবথেকে জনপ্রিয় ধারাবাহিক হলো “মিঠাই”। ৫৪ বার বাংলার সেরা শিরোপা জিতে নিয়েছে এই ধারাবাহিক। ২০২১ সালের ৪ঠা জানুয়ারি ধারাবাহিকটি শুরু হওয়ার পর থেকেই এক বিপুল অংশের দর্শকের খুব কাছের ধারাবাহিকে পরিণত হয় “মিঠাই”। ধারাবাহীকে একের পর একট রয়েছে দর্শকদের জন্য টুইস্ট। তবে এবার বলতে গেলে বেশ বড়সড়ো এক চমক রয়েছে মিঠাই ভক্তদের জন্য।

একের পর এক অনুষ্ঠান চলেছে মাদক পরিবারে। সম্প্রতি গেল জন্মাষ্টমী অনুষ্ঠান। কিন্তু তারপরেই দেখতে না দেখতেই চলে এলো মোদক পরিবারের দুই প্রাণ ভোমরা মিঠাই ও সিদ্ধার্থের এক বছরের বিবাহ বার্ষিকী। যদিও যাকে নিয়ে অনুষ্ঠান তার কোন ভ্রুক্ষেপই নেই। যদিও এই যে বিবাহ বার্ষিকীর কথা মনে নেই এটা পুরোটাই অভিনয় সিদ্ধান্তের। সে চায় মিঠাইকে একটা সারপ্রাইজ দিতে। সে অভিনয় তো করছে বিবাহবার্ষিকী ভুলে যাওয়ার কিন্তু আদতে তা নয়।

এদিন গোপালভক্ত মিঠাই বিশেষ দিনে গোপালের জন্য গান গায়। পুজো দিয়ে আসে সিদ্ধার্থের নামে। কায়দা করে স্বামীকে প্রণামটাও সেরে ফেলে। এরপরেই পুরো হল্লা পার্টি মিঠাই আর সিডের বিবাহ বার্ষিকী কিভাবে পালন করা হবে তা নিয়ে প্ল্যানিং প্লটিং করে ফেলে। কিন্তু মিঠাইয়ের মনে বারবার একটাই কথা ঘুরতে থাকে যে সত্যিই কি সিড ভুলে গেছে তাদের বিবাহ বার্ষিকীর কথা? শুধু মিঠাইয়ের নয় মোদক পরিবারের সকলের মাথাতেই একই প্রশ্ন।

এরপরেই সিদ্ধার্থ নিজের পরিকল্পনা অনুযায়ী মনোহরার বাইরে পাঠিয়ে দেয় সকল সদস্যকে। তাদের সাথে সাথে যায় মিঠাইও। দিনশেষে সকলে যখন বাড়ি ফেরে তখন মনোহরা অন্ধকার। এই অন্ধকারে মিঠাই ভয় পেলে তখনই সারপ্রাইজ দেয় সিড। সে নিজের মুখেই সবটা গুছিয়ে বলে যে বিবাহ বার্ষিকীর কথা সে ভুলে যায়নি বরং সারপ্রাইজ দেওয়ার প্ল্যান করছিল। নিজের হাতে কতগুলি শাড়ি কিনে আনে মিঠাইয়ের জন্য এবং তার মধ্যে থেকে একটি বেছে নেয় তাকে পরাবার জন্য। তবে কি? ভালোবাসার পর্ব ছেড়ে এবার কাছে আসবে মিঠাই আর সিদ্ধার্থ? নিজের হাতে মিঠাইকে শাড়ি পরিয়ে দিতে চলেছে সিদ্ধার্থ? সবটা জানতে হলে চোখ রাখুন মিঠাইয়ে।

Back to top button