বাংলা সিরিয়াল

পল্লবী ইন্টারভিউতে বলেছিলেন নিম ফুলের মধুতে কূটকাচালি নেই! অথচ বিয়ের মন্ডপে কনে বদল করতে চাইছে কুটিলা বৌদি, মাছের গন্ডগোলে বিয়ে ভাঙতে চাইছেন বরের জেঠু! এগুলো যদি সাধারণ হয়,কূটকচালি তবে কী?-বলছেন ট্রোলাররা!

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক নিম ফুলের মধু প্রথম সপ্তাহে এসে টিআরপিতে বাজিমাত করলেও এই সপ্তাহে দেখা যাচ্ছে টিআরপিতে স্লট হারিয়েছে সে, বঙ্গ সেরা ৫ ধারাবাহিকের মধ্যেও তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না, তবে টিআরপি খারাপ হওয়ার জন্য এই ধারাবাহিক এক ফোঁটাও ট্রোল হচ্ছে না ট্রোল হচ্ছে এই ধারাবাহিক নায়িকার বলা একটি কথার জন্য!

আসলে নিম ফুলের মধু ধারাবাহিকটি টেলিকাস্ট হওয়ার আগে এই ধারাবাহিকের নায়িকা পল্লবী শর্মা একবার একটি ইন্টারভিউতে কথা প্রসঙ্গে বলে ফেলেছিলেন, নিম ফুলের মধু ধারাবাহিকে কোন উড়ন্ত সিঁদুর,কুটকচালি গাঁজাখুরি দেখানো হবে না।- এখন বর্তমানে এই ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে যে নায়কের বৌদি মৌমিতা নায়কের সাথে তার নিজের বোন তিন্নির বিয়ে দিতে চাইছেন।

তিন্নির সাথে সৃজনের বিয়ে দেওয়ার জন্য তিনি কখনো পর্নার বাড়িতে মিথ্যে কল করাচ্ছেন কখনো গায়ে হলুদ বদলে দিচ্ছেন কখনো বা তিন্নিকে পুরোপুরি কনে সাজিয়ে,কনের জায়গায় তিন্নিকে বসানোর প্ল্যান করছেন। যদিও এখনো পর্যন্ত তার কোন প্ল্যানই সফল হয়নি সমস্ত প্ল্যান‌ই বানচাল হয়ে গেছে তবুও এই সমস্ত বিষয় নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভীষণভাবে ট্রোলিং শুরু হয়েছে। আবার কতদিন বিয়ের পর্বে দেখানো হয়েছে সৃজনের জেঠু মাছ নিয়ে ঝগড়া করে বিয়ে বন্ধ করে দিতে চাইছেন। এইসব দেখার পর নেটিজেনেরা লিখছেন যে, বিশেষ সিরিয়ালে নাকি কুট কাচালি নেই অথচ সামান্য মাছ এর জন্য বিয়ের মন্ডপে বিয়ে ভেঙে দেওয়ার চেষ্টা হচ্ছে!

আর একজন আবার লিখেছেন যে,
“নিম ফুলের মধু এ নাকি কূটকচালি নেই? তা কাল দেখলাম নায়কের বৌদি কি কুচুটে”

আরেকজন আবার লিখেছেন,“ লীনা পিসি কনেবদল দেখালে দোষের ওদিকে নিম ফুলের মধুতে কনে বদল হচ্ছে
পর্নার জায়গায় অন্য একটা মেয়ে কনের সাজে সেজে পর্নাকে দরজা বন্ধ করে আটকে রেখেছে”- অর্থাৎ এর আগে ধুলোকনাতে যখন নায়িকার বদলে চড়ুই বসে বিয়ে হয়েছিল তখন সবাই রে রে করে উঠেছিল, কিন্তু নিম ফুলের মধুতেও সেই একই চেষ্টা করা হয়েছে শুধু পার্থক্য এটাই যে সেই চেষ্টা শেষমেষ সফল হয়নি!-তবে এটাকে কি কূটকাচালি বলা চলে না?

Back to top button