বাংলা সিরিয়াল

‘পর্নার শাশুড়ি পর্নার বডি ওয়াশ ফেলে দিয়ে বলে সবাইকে এক সাবান ব্যবহার করতে হবে’! যৌথ পরিবারকে যেমনটা দেখানো হচ্ছে তা যথেষ্ট বাড়াবাড়ি নিম ফুলের মধু দেখে বিরক্ত দর্শক বললেন!

বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক হলো নিম ফুলের মধু। এই ধারাবাহিকে দেখা যায় যে, পর্ণা প্রথম থেকেই যৌথ পরিবারে বিয়ে করার স্বপ্ন দেখে কিন্তু তার মা চান একটা ছেলে দেখে বিয়ে দিয়ে পর্নাকে বিদেশে সেটেল করতে। পর্না কিন্তু নিজের ইমোশন স্বপ্ন নিয়ে থাকতে বেশি ভালোবাসে, অন্যদিকে তার মা চরম বাস্তববাদী আর পর্না যেভাবে যৌথ পরিবারকে ভেবে এসেছে সে জানে যৌথ পরিবার সেরকমই। এরপর সৃজনদের বাড়িতে বিয়ে হয়ে বউ হয়ে আসে পর্না কিন্তু বিয়ের পর তার স্বপ্নগুলো ভেঙ্গে খানখান হয়ে যায়। যৌথ পরিবার নিয়ে সে যেমনটা ভেবেছিল সে বউ হয়ে এসে দেখে যৌথ পরিবার আদপে তেমনটা নয়।

পর্না দুটো ডিম ভেজেছে বলে তাকে সেখানে জবাবদিহি করতে হয় এমন কি পর্নার বর সৃজন নিজে ডিম খেয়ে দোষ দেয় পর্নার ঘাড়ে। পর্নার শাশুড়ি মা সবেতেই অসুবিধা, তিনি সবকিছুর মধ্যেই পর্নার দোষ দেখতে পান, পর্না সৃজনকে কিছু রান্না করে খেতে দিলেও দোষ আবার নিজের ভাবনা চিন্তার প্রকাশ ঘটালেও দোষ! আবার নিজের ছেলে সৃজনের সাথে বৌমা দাঁড়িয়ে ছবি তুললে কি দুটো হেসে কথা বললেও সহ্য করতে পারেন না পর্নার শাশুড়ি। সামান্য সামান্য বিষয় নিয়ে এই বাড়িতে ঝগড়া হয় যা দেখে পর্না ভাবে যে, সে কি ভেবেছিল আর কি হলো!

এখানেই শেষ নয়, পর্না দেখতে পাই যে যৌথ পরিবারে একটা সাবান‌ই প্রত্যেকে ব্যবহার করে, একজন নেটিজেন সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন যে, পর্ণার শাশুড়ি ওর Bodywash ফেলে দিয়েছে আর ওকে বলে সবাইকে এক সাবান use করতে হবে আর সেই নিয়ে ঝামেলা লেগে গেছে।
পর্ণা:‘জগুদাদা, এ আমি কোথায় এসে পড়েছি। সামান্য স্নান করা নিয়েও অশান্তি’

ভাই এরা কেমন বনেদি পরিবার

#নিম ফুলের মধু”- তবে এই এপিসোড টা দেখে অনেকেই বলেছেন যে এগুলো অত্যাধিক বাড়াবাড়ি যৌথ পরিবার মোটেও এতটা খারাপ হয় না, সংসারের ১০ জন মানুষ হয়তো দশ রকমের হয় কিন্তু যৌথ পরিবার মানে সবার মধ্যে একটা মিলমিশ থাকে কিন্তু ধারাবাহিকে যা দেখানো হচ্ছে তাতে যৌথ পরিবার সম্পর্কে বিরক্তি তৈরি হবে দর্শকদের।

Back to top button