বাংলা সিরিয়াল

“ইচ্ছে করছে কটা কাঁচা মরিচ খেয়ে মরে যাই” – ধুলোকণার নতুন প্রমো ভিডিওতে লালনের স্মৃতিশক্তি ফিরে পাওয়ার ধরন দেখে চরম ট্রল করছে নেট পাড়া

বাংলা ধারাবাহিক জগতের অন্যতম জনপ্রিয় একটি ধারাবাহিক হলো “ধুলোকণা”। রাত আটটার স্লটে সম্প্রচারিত হওয়া এই ধারাবাহিকের জনপ্রিয়তা দিন দিন বেড়েই চলেছে। গল্পের প্লট বেশ মজবুত করেছেন লেখিকা লীনা গঙ্গোপাধ্যায়। বর্তমানে ধারাবাহিকে যে স্লট চলছে তা বেশ জমজমাট উত্তেজনার মধ্যে রেখেছে দর্শক মহলকে। ধারাবাহিক জগতের অন্যতম জনপ্রিয় একটি নাম হল “ধুলোকনা”। এই ধারাবাহিকের দুই মুখ্য চরিত্র লালন এবং ফুলঝুরি। এই দুই মুখ্য চরিত্রের জীবনের যা টানাপোড়ন দেখানো হচ্ছে তাতেই দর্শক মেতে আছেন।

দর্শক মহলে যারাই ধারাবাহিক দেখেন তারা জানবেন বর্তমানে দেখানো হচ্ছে। লালন নিজের স্মৃতিশক্তি হারিয়ে এখনো রয়েছে ডাক্তারের বাড়িতে। বাকি সবার সাথে সাথে ফুলঝুরিকেও ভুলে গিয়েছে সে। অন্যদিকে ডাক্তারের মেয়ে তিতিরের সাথে ইতিমধ্যেই বিয়ে হয়ে গিয়েছে লালনের। কিন্তু সেই বিয়ে হয়েছে লাল লিপস্টিক দিয়ে। ডাক্তার পিপিরের সাথে লালনের বিয়ের আগের মুহূর্ত পর্যন্ত চেষ্টা করে গেছেন যাতে লালনের সব কিছু মনে পড়ে যায়। কিন্তু সে গুরে বালি।

লালনের সাথে বিয়ে হয় তিতিরের। কিন্তু বিয়ে হলেও লালন আর তিতির এক ঘরে থাকে না। তিতিরের চরিত্রটাকে এমন দেখানো হচ্ছে যেন সে একবার মন চাইছে লালনের জন্য সব কিছু মনে পড়ে যায়। আবার আরেকবার মনে হচ্ছে যেন সে চাইছে যেন কিছুই মনে না পড়ে। কিন্তু এসবের মধ্যেই আবার নতুন প্রোমো সামনে এসেছে ধারাবাহিকের।

এই প্রমোতে দেখানো হচ্ছে যে একেবারে সোজা স্টেজেই গান গাইতে উঠে লালনের মনে পড়ে গেল ফুলজুরির কথা। ফুলঝুরিকে চিনতে পেরে জড়িয়ে ধরে কাঁদছে তারা দুজন। অন্যদিকে স্টেজের উপর দাঁড়িয়ে কাঁদছে ফুল চুরির বৌদি, মিনি, আর বাকি যারা স্টেজের উপর ছিলেন তারাও। তবে এই প্রমো দেখেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রল করছে দর্শক। একজন লিখেছেন, “ইচ্ছে করছে কটা কাঁচা মরিচ খেয়ে মরে যাই”। আরেকজন লিখেছেন, “তাহলে এবার লিপস্টিক দিয়ে বিয়ে করা বউয়ের ন্যাকামো শুরু হবে সিরিয়ালের অ্যাট লাস্ট”।

Back to top button