বাংলা সিরিয়াল

নবাবকে জয়েনিং লেটারের ডুপ্লিকেট কপি হাতে ধরিয়ে দিলো নন্দিনী! অন্যদিকে বাড়ি গিয়ে কমলিকা ও পিঙ্কিকে পুলিশি জেরা শুরু করলো নন্দিনী!কী হবে এরপর?

স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক হলো নবাব নন্দিনী। নবাব নন্দিনী তে ইতিমধ্যেই দেখা গেছে যে নবাবের জয়েনিং লেটার নন্দিনীকে রাখতে দেওয়া হয়েছিল ভরসা করে। নন্দিনী সেটা ঠিক জায়গায় রেখেও ছিল কিন্তু নবাবের বড় বৌদি কমলিকা তার ঝিকে দিয়ে সেটা নবাব নন্দিনীর ঘর থেকে চুরি করে আনায় এরপর সেটা দিয়ে কাগজের নৌকা বানিয়ে জলে ভাসিয়ে দেয়। নন্দিনী এর কোন কিছুই টের পায় নি, কারণ সে এমনটা হবে সেটা ভাবতেও পারেনি। কিন্তু পুরো দোষটা তার ঘাড়েই এসে পড়ে।

নন্দিনী তখন পুরো পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার জন্য প্রথমে নবাবকে সাথে নিয়ে পুলিশ স্টেশনে যায় এবং জয়েনিং লেটার হারিয়ে যাওয়ার জন্য একটা এফ আই আর করে তারপর সেই এফ আই আরের কপি নিয়ে অফিসে গিয়ে যোগাযোগ করে তারা, এরপর ক্লাব থেকে একটা ডুপ্লিকেট কপি দেওয়া হয় নবাবকে।

এরপর নন্দিনী বাড়িতে গিয়ে কমলিকার উদ্দেশ্যে বলে, এই চিঠির কপি কেউ যদি এরপর ছিঁড়ে ফেলে তাতেও কিছু যায় আসবে না আর কারণ এই জয়েনিং লেটারের কপি ক্লাবের তরফ থেকে মেল করে দেওয়া হয়েছে।

পুরো ঘটনাটা শুনে কমলিকা চমকে যায় আর নবাবের পরিবারের সদস্যরা প্রত্যেকেই। এরপর নন্দিনী কাজের মেয়ে পিঙ্কির উদ্দেশ্যে বলে, তুমি এইবার যতবার ইচ্ছা এই কাগজ নিয়ে কাগজের নৌকা বানিয়ে ভাসাতে পারো। পিঙ্কি বলে যে, আমি কাগজের নৌকো বানাতে পারি না। তখন নন্দিনী বলে, তাহলে কেউ হয়ত তোমায় বানিয়ে দিয়েছিলো। এইকথা শুনে কমলিকা ভয় পেয়ে যায় যে এইবার কি পিঙ্কি তার নাম বলে দেবে? অন্য দিকে নবাব সহ পরিবারের সবাই এইবার পিঙ্কিকেই চেপে ধরে। কী করবে পিঙ্কি এইবার? সে কি বলে দেবে কমলিকার নাম?

Back to top button