বাংলা সিরিয়াল

পুরোনো ভাঙাচোরা ভুতুড়ে বাড়ি নয়, নবাব নন্দিনী ভুল করে শেষমেষ কিনা উঠল অ্যাব;রশন ক্লিনিকে! তারপর কী হলো জানেন?

স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক নবাব নন্দিনী তে আগের দিন দেখা গেছে যে নবাব যখন একটা গরীবের মেয়েকে টাকা দিয়ে সাহায্য করছিল এবং জোর করে তার হাতে টাকা গুঁজে দিচ্ছিল তখন নন্দিনীভাবে নবাব টাকা জোর করে হাতে দিচ্ছে একটা বাজে মতলবে এই কারণে সে রাস্তার মধ্যে দাঁড়িয়ে নবাবকে চড় মারে আর লোকজন ছুটে আসে নবাবকে অপমান করতে শুরু করে তখন সেই মেয়েটি নিজের মুখ খুলে এবং বলে নবাব কত ভালো এবং তাকে সাহায্য করছিল।

এরপর নবাব নন্দিনীর সাম্প্রতিককালের একটি প্রোমো দিয়েছে যেখানে দেখানো হচ্ছে যে মাঝ রাস্তায় নন্দিনীর অটো দাঁড় করিয়ে নবাব বলে আপনি আমাকে মিথ্যা অপবাদ দিলেন এবার দেখবেন অপবাদ পেয়ে জীবন কাটাতে কেমন লাগে? এরপর নন্দিনী ও ছুটতে থাকে আর পিছন পিছন নবাব ভয় পেয়ে নবাব‌ও ছুটতে থাকে। মাঝ রাস্তায় একটা গাড়ির সাথে ধাক্কা লেগে নন্দিনী পড়ে যায় এবং সে পায়ে চোট পায়।

প্রোমোতে দেখানো হয় যে নন্দিনীর পায়ে চোট লাগলে নবাব কোলে করে নন্দিনীকে তুলে নিয়ে ডাক্তারখানায় যায় চিকিৎসা করানোর জন্য কিন্তু ভুলক্রমে সে একটি অ্যাবরশন ক্লিনিকে চলে যায়। সেখানে একজন রিপ্রেজেন্টেটিভ মহিলা ছিলেন তিনি বলেন অ্যাবরশন করাবেন তো চলে আসুন! এই শুনে নবাব ঘাবড়ে যায় আর নন্দিনী বলে, অ্যা, পায়ের চোট সারাতে শেষে কিনা অ্যাবরশন ক্লিনিকে!

এই প্রোমো দেখে দর্শকরা হেসে লুটিয়ে পড়ছেন। সত্যি প্রোমোটি খুব মজাদার হয়েছে এবং অভিনব। অনেক সময় দেখা যায় ধারাবাহিকে গাড়ি খারাপ হয়ে নায়ক-নায়িকা একটা পুরোনো ভাঙাচোরা বাড়িতে উঠছে, কিন্তু এইরকম দৃশ্য সচরাচর দেখা যায় না।

Back to top button