বাংলা সিরিয়াল

‘উড়ন তুবড়ি’ খ্যাত সোহিনীর সাথে অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে তার স্বামীর! আত্ম;হননের হুমকি দিলেন বিখ্যাত মডেল!

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক উড়ন তুবড়ির নায়িকা সোহিনী বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে এইবার বর হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠল। মডেল সুস্মিতা পাল ফেসবুকের একটি দীর্ঘ পোস্টে লেখেন যে তার স্বামী সন্দীপন পরিয়ালের সাথে অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে তুবড়ির অর্থাৎ সোহিনীর। সুস্মিতার স্বামী সন্দীপন পারিয়াল পেশায় একজন ড্রামার, অনুপম রায়ের ব্র্যান্ডের সাথে যুক্ত তিনি। এই সন্দীপনের সাথেই সোহিনীর অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে এবং সেই সম্পর্কের জেরে সুস্মিতা আত্মহত্যা করবেন বলেও বিস্ফোরক দাবি করেন।

সুস্মিতা বলেন,“আমার স্বামী সন্দীপন পারিয়ালের অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে বিখ্যাত ‘উড়ন তুবড়ি’ সোহিনী বন্দোপাধ্যায়ের সঙ্গে। ও (সোহিনী) দাবি করে ওর বয়ফ্রেন্ড রয়েছে তাহলে আমার স্বামীর সঙ্গে ওর সম্পর্ক কীরকম? বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে না ঘুরে আমার স্বামীর সঙ্গে ডিনারে যাচ্ছে, সিনেমা দেখতে যাচ্ছে, ঘুরছে। ওরা আমাকে বাধ্য করছে আত্মহত্যা করতে। হ্যাঁ আমার মধ্যে আত্মহত্যার প্রবণতা রয়েছে এটা বলতে আমি লজ্জিত ন‌ই।”

একই সাথে সুস্মিতা, এ‌ও বলেন যে,“আমি বাঁচতে চাই। আমার মানসিক পরিস্থিতির ঠিক নেই আমি যে কোন মুহূর্তে কিছু করে ফেলতে পারি।” এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সোহিনী বলেছেন, “ এই ব্যাপার নিয়ে আমার কিছু বলবার নেই। তবে আমি এটা নিয়ে অবাক নই‌। আমি কোন কিছু এক্সপ্লেইন করতে চাই না। বন্ধুত্বকে কোনদিন ব্যাখ্যা করা যায় না। আমি আমার বয়ফ্রেন্ড আর সন্দীপন হামেশা একসঙ্গে হ্যাংআউট করি। আমার সঙ্গে অন্য কিছু করবার হয় তাহলে আমি সন্দীপনের সঙ্গে একা ঘুরতে যেতাম।”

অভিনেত্রী একই সাথে আরো বলেন যে, জয় সূর্য গুপ্তের সঙ্গে দীর্ঘ ৯ বছরের সম্পর্ক রয়েছে তার। তার সাথে অভিনেত্রীর আরো দাবি যে, তার পরিবার এবং কাজের জায়গায় সকলেই জানেন যে জয় ও সন্দীপনের সাথে তার কী সম্পর্ক তিনি বেশি কিছু ব্যাখ্যা দিতে চান না। সুস্মিতার অভিযোগ সম্পর্কে তিনি শুধু একটি কথাই বলেন যে, মানুষের নজর যেরকম সে কোন সম্পর্ককে তেমনভাবেই দেখে।

Back to top button