বাংলা সিরিয়াল

গুন্ডা দিয়ে সিদ্ধেশ্বর মিষ্টান্ন ভান্ডার ভাঙচুর করতে পাঠালো মিঠাইয়ের নতুন ভিলেন, দোকান বাঁচাতে গুন্ডাদের সামনে রুখে দাঁড়ালো মিঠাই! কাউন্সিলর প্রমিলা লাহার ষড়যন্ত্রের শিকার মোদক পরিবার

এই মুহূর্তে বাংলার সেরা ধারাবাহিক হলে জি বাংলার মিঠাই ধারাবাহিক। ৫৬ সপ্তাহ ধরে টিআরপি তালিকার প্রথম স্থান দখল করে রাখায় নতুন রেকর্ড গড়েছে এই ধারাবাহিক। গল্পে নিত্য নতুন চমক এবং টুইস্টের জন্য আবারও TRP তালিকায় প্রথম স্থান দখল করে নিয়েছে। দেড় বছরেরও বেশি সময় হয়ে গেছে মিঠাইয়ের যাত্রা পথ কিন্তু এখনো দর্শকের মনে একই ভাবে ভালোবাসা আছে মিঠাইয়ের জন্য। এর মূল কারণ ধারাবাহিকের প্রতিটি চরিত্র। মাঝে যদিও ধারাবাহিকের ছন্দপতন ঘটেছিল। কিন্তু আরো একবার ধামাকাদার পর্বের মাধ্যমে দর্শকদের ভালোবাসা ফিরে পেয়েছে এই ধারাবাহিক।

এই মুহূর্তে মিঠাই ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে ওমি আগারওয়ালের মৃত্যুর পর আবারো শান্তি ফিরে এসেছে মোদক পরিবারে কিন্তু তা ছিল ক্ষণস্থায়ী। ধারাবাহিকে এবার একসাথে দুজন ভিলেনের এন্টি ঘটেছে। এবং তাদের ষড়যন্ত্রের ফাঁদে পড়েছে মোদক পরিবার। ভিলেন নাম্বার ওয়ান হল ওমি আগরওয়াল এর বড় দাদা আদিত্য আগারওয়াল। যে কিনা ভাই এর মৃত্যুর প্রতিশোধ নিতে ফিরে এসেছে। আর ভিলেন নাম্বার টু হল কাউন্সিলর প্রমিলা লাহা। এই দুই ভিলেনের নানান রকম ষড়যন্ত্রের শিকার হবে এবার মোদক পরিবার। সেখান থেকে কি করে মিঠাই নিজের পরিবারকে রক্ষা করে সেটাই দেখার অপেক্ষা।

ইতিমধ্যে যেমন মোদক পরিবারের উপর আক্রমণ শুরু হয়ে গিয়েছে। গতকালের পর্বে দেখানো হয়েছে মিঠাইদের সিদ্ধেশ্বর মোদকের দোকানে হামলা চালাতে বেশ কিছু গুন্ডা পাঠিয়েছিল ওই কাউন্সিলর। কিন্তু মিঠাইয়ের সামনে কোন গুন্ডাই টিকতে পারেনি। আসলে ইচ্ছে করে ওই গুন্ডাদের মিঠাইদের দোকানে পাঠিয়ে বাসি মিষ্টির নাম করে ভাঙচুর করতে এসেছিল ওই গুন্ডারা। কিন্তু মিঠাইয়ের সামনে টিকতে পারিনি গুন্ডারা। মাথায় মিষ্টির রস ঢেলে দিয়ে মিঠাই সে গুন্ডাদের তাড়িয়ে দেয় আর এই ভিডিওটি শেয়ার করা হয়েছে জি বাংলার অফিসিয়াল ফেসবুক পেজের তরফ থেকে।

Back to top button