বাংলা সিরিয়াল

‘টেসকে নিয়ে নন্দার জেলাসিটা একটু বাড়াবাড়ি হয়ে যাচ্ছে না?টেস sid কে বিয়ে করতে চেয়েছিল জেলাসি টা মিঠাইয়ের হওয়ার কথা নন্দার না!’-মিঠাই ধারাবাহিকের কনটেন্ট নিয়ে প্রশ্ন তুললেন মিঠাই ভক্তরা!

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক মিঠাই। এই ধারাবাহিকে দেখানো হয় যে উচ্ছে বাবু আর মিঠাইয়ের রসায়ন এছাড়া হল্লা পার্টির গল্প ‌ও থাকে। এই ধারাবাহিকে একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পার্ট হলো তোর্সা। তোর্সা চরিত্রটিকে দেখানো হয়েছিল প্রথম থেকে যে সে সিডের একজন সহকর্মী এবং খুব ভালো বন্ধু। এছাড়া তোর্সা মনে মনে সিড কে ভালোবাসতো সিড যদিও তোর্সা কে বন্ধু ছাড়া অন্য কিছু ভাবতো না। এই তোর্সা মিঠাই এর সাথে সিদ্ধার্থের বিয়েটা কিছুতেই মেনে নিতে পারে নি।

সে বারবার চেষ্টা করেছে সিদ্ধার্থ এবং মিঠাইকে আলাদা করার এবং সিদ্ধার্থ যাতে মিঠাইকে ডিভোর্স দিয়ে দেয় সেই চেষ্টাও করেছে। কিন্তু সেই সমস্ত চেষ্টায় সে বিফল হয়েছে এবং সে বুঝতে পেরেছে সিদ্ধার্থ আসলে মিঠাই কে ভালোবাসে এবং সে কোনদিনই মিঠাই কে ছাড়বে না। এটা রিয়েলাইজ করবার পর তোর্সা সিদ্ধার্থের বড় দাদা সোমকে বিয়ে করে নেয় এবং সিডের বড় বৌদি হয়ে প্রবেশ করে মনোহরায়।

সোম থেকে শুরু করে পরিবারের প্রত্যেকে জানতো যে কেন তোর্সা এই কাজটা করেছে। তোর্সা আসলে মনে মনে সিড কে জেলাসি ফিল করাতে চেয়েছিল দেখাতে চেয়েছিল যে সে কত ভালো একজন স্ত্রী মিঠাইয়ের থেকে এটা দেখিয়ে তাই সম্পূর্ণ ব্যাপারটাই যদি কেউ সব থেকে বেশি ইনসিকিউরিটিতে ভোগে সেটা হবে মিঠাই। কিন্তু ধারাবাহিকে দেখানো হয় যে সিদ্ধার্থ ও তোর্সা কথা বললে মিঠাই কখনো সেটা নিয়ে ইনসিকিউরিটি তে ভোগে না, অন্যদিকে রাজিব তোর্সার সাথে কথা বললে নন্দা ইনসিকিউরিটিতে ভোগে এই বিষয়টা দর্শকরা ঠিক হজম করতে পারছেন না।

তাই এই বিষয়টি দৃষ্টি আকর্ষণ করে একজন নেটিজেন সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন, “টেস কে নিয়ে নন্দার জেলাসী টা একটু বাড়াবাড়ি হয়ে যাচ্ছে না ? টেস sid কে বিয়ে করতে চেয়েছিল জেলাস টা মিঠাই এর হওয়া কথা কিন্তু মিঠাই এর অসস্তি নেই। টেস আর রাজিব এর সম্পর্ক টা বৌদি নন্দায় এর একটু মজার সম্পর্ক সেখানে জেলাসি টা একটু কেমন না।”

যদিও ভক্তদের মধ্যে একজন আবার বিষয়টির প্রতিবাদ করে লিখেছেন, রাজীব আসলে একটু আদিখ্যেতা করে টেসকে নিয়ে, নন্দা জানে সবটা যে কিছুই নেই কিন্তু এই আদিখ্যেতাটা নন্দা পছন্দ করে না।

Back to top button