বাংলা সিরিয়াল

‘দিঠির মা;সিক সমস্যা থেকে শুরু করে গুনগুনের মতো অকৃতকার্য হ‌ওয়া মেয়েকে নায়িকা করা লীনা গাঙ্গুলীর গল্প মানেই নতুনত্ব!’ ম্যাজিক মোমেন্টসের প্রশংপায় পঞ্চমুখ নেটিজেনরা

মানুষকে মনোরঞ্জন করবার জন্য একাধিক চ্যানেল তৈরি হয়েছে আজকাল। সেই সকল চ্যানেলে আবার একাধিক ধারাবাহিক আছে যেগুলো ৫-১১ টা অবধি হয়। এই সকল ধারাবাহিকের মধ্যেও মানুষ নতুনত্ব খোঁজে। এই নতুনত্বের স্বাদ দেওয়ার জন্য একাধিক প্রোডাকশন হাউজ আছে যেমন ম্যাজিক মোমেন্টস,ব্লুজ,অ্যাক্রোপলিস ইত্যাদি। লীনা গাঙ্গুলী থেকে স্নেহাশীষ চক্রবর্তীর মতো মানুষেরা প্রতিমুহূর্তে নতুন নতুন গল্প লিখে চলেছেন!

এরপর শুরু হয় ধারাবাহিকের সাথে ধারাবাহিকের লড়াই। চ্যানেলের সাথে চ্যানেলের লড়াই। টি আর পি ছিনিয়ে নেওয়ার প্রতিযোগিতা! জনপ্রিয়তার নিরিখে এগিয়ে থাকার মতো বিষয়গুলো।

একেক জনের একেকরকম পছন্দ আর সেই পছন্দ অনুযায়ী এক এক মানুষ এক একটি ধারাবাহিকের প্রতি আসক্ত। কেউ জি বাংলার ফ্যান তো কেউ স্টার জলসার ফ্যান। কেউ ব্লুজের ধারাবাহিক ভালোবাসে তো কেউ ম্যাজিক মোমেন্টসের। সম্প্রতি একজন ফ্যান লীনা গাঙ্গুলীর ধারাবাহিক নিয়ে উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। তার কথায়,লীনা গাঙ্গুলীর লেখায় একটা নতুন দিক থাকে সবসময়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ঐ ভক্ত লিখেছেন যে,“ লীনা পিসির গল্পে সব সময় ই নতুন কিছু থাকে , শ্রীময়ী তে দিঠির মাসিক এর কথা তুলে ধরেছিল , মোহর যে ভাবে মোহর কে ফুটিয়ে ছিল এবং ডায়লগ গুলো “কেউ মেয়ে হয়ে জন্মায় না সমাজ তাকে করে। এখন ও মেয়েদের বিয়ে হয় ছেলেরা বিয়ে করে” খড়কুটোতে গুনগুনকে ফেল করিয়েছিল এবং অনেক দিন পড়াশোনা সিন দেখানোর পর ওকে পাশ করা সিন দেখায় এছাড়াও গুনগুন গাইতেও পারে না , খড়কুটো হিরো আবার ৬প্যাক নয়,
,ধুলোকনায় ফুলঝুরি কে বসতির কাহিনীতে বাস্তব চিত্রে তুলে ধরেছিল , গুড্ডি তেও দুষ্টুমি গুলো ভালো করে ফুটিয়ে তোলে ….”

Back to top button