বাংলা সিরিয়াল

গানের চর্চা সাথে সাথে মায়ের বিউটি পার্লারে কাজ করে কৃত্তিকা! খালি গলায় গান গেয়ে সারেগামাপার মূল পর্বে জায়গা করে নিল হুগলীর বৈদ্যবাটির কৃত্তিকা

জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো সারেগামাপা যেখানে দেশ-বিদেশের সমস্ত ট্যালেন্টেড গায়ক-গায়িকারা এসে হাজির হন তাদের মধ্যে থেকে সেরাদের কে বেছে নেন বিচারকরা এবং তাদের জায়গা হয় মূল পর্বে। তবে অন্যান্য বারের তুলনায় এবার সারেগামাপা তে একটি বিশেষ চমক আছে তা হল পন্ডিত অজয় চক্রবর্তীর উপস্থিতি। তিনি প্রতিযোগীদের গান শুনে নিজের মুল্যবান মতামত দিচ্ছেন, এখানেই শেষ নয়, পন্ডিত অজয় চক্রবর্তী রিয়েলিটি শোয়ের জাঁকজমক ও চাকচিক্যের বিষয়ে জানেন বলেই বেশিরভাগ সময় যন্ত্র বাদে প্রতিযোগীদের শুধু খালি গলায় গান গাইতে বলেন এবং খালি গলার গান শুনে তিনি প্রতিযোগীদের সিলেক্ট করেন, ঠিক যেমনটা হলো আজকের পর্বে।

আজ সারেগামাপার মঞ্চে উপস্থিত হয়েছিলেন কৃত্তিকা চক্রবর্তী। হুগলির বৈদ্যবাটি থেকে এই রিয়েলিটি শোতে অংশগ্রহণ করতে এসেছিলেন তিনি। জানা যায় গানের চর্চা সাথে সাথে মায়ের বিউটি পার্লারে কাজ করেন কৃত্তিকা। এই দিন বিচারকমণ্ডলীর সামনে তিনি ‘আষাঢ় শ্রাবণ মানে না তো মন’ গানটি গান। এরপর শ্রীকান্ত আচার্য পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তী কে বলেন আপনি যদি একটু কোন টেষ্ট নেন ওর জন্য।

পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তী তখন বলেন, তুমি কী কী গান জানো? কৃত্তিকা এরপর ‘যো ওয়াদা কিয়া বো নিভানা পারেগা’ গানটির কথা বললে পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তী বলেন,“ এই গানটি তুমি খালি গলায় গেয়ে শোনাও”। এরপর কৃত্তিকা এই গানটি খালি গলায় গাইতে থাকে, তার গান শেষ হলে আবির মজা করে বলে, কৃত্তিকা তার খাটনি বাড়িয়ে দিলো তার জন্য আবার চেয়ার আনতে হবে! অর্থাৎ শ্রীকান্ত আচার্য, শান্তনু মৈত্র ও বলিউডের রিচা শর্মা প্রত্যেকেই তাকে ফুল নম্বর দিয়েছে এবং সারেগামাপার মূল পর্বে জায়গা করে নিয়েছে কৃত্তিকা।

Back to top button