বাংলা সিরিয়াল

খড়ি বসে সিংহাসনে, আর দ্যুতি খড়ির জন্য নিজের হাতে বানিয়ে আনলো ফলের সরবত! একি দৃশ্য দেখানো হলো ‘গাঁটছড়া’ ধারাবাহিকে, খড়ির সেবা করেই দিন কাটাচ্ছে দ্যুতি

বর্তমানে জনপ্রিয় ধারাবাহিক গুলোর মধ্যে অন্যতম একটি হলো ‘গাঁটছাড়া’ ধারাবাহিক। ধারাবাহিকের নিত্য নতুন চমক ধারাবাহিকে আরও আকৃষ্ট করে তুলেছে এ ধারাবাহিকের প্রতি। শুরু হওয়ার পর টানা ১৪ সপ্তাহ প্রথম স্থানে ছিল ধারাবাহিক। এই ধারাবাহিকের মাধ্যমে প্রথমবারের জন্য অনস্ক্রিন জুটি বেঁধেছেন গৌরব এবং সোলাঙ্কি। তাদের চরিত্রের নাম খড়ি এবং ঋদ্ধিমান। আরও ৩ টি জুটি দেখা গিয়েছে এই ধারাবাহিকে। দ্যুতি এবং রাহুলের চরিত্রে অভিনয় করছেন অভিনেত্রী শ্রীমা ভট্টাচার্য এবং অনিন্দ্য রায় এই দুজন আমাদের কাছে ভীষণভাবে জনপ্রিয়। কারণ এর আগেও বহু ধারাবাহিকে আমরা দুজন কে অভিনয় করতে দেখতে পেয়েছি এবং আরো একটি জুটি হলো বনি এবং কুনালের জুটি। বনির ভূমিকায় অভিনয় করছেন নবাগত অভিনেত্রী অনুষ্কা গোস্বামী এবং কুণালের চরিত্রে দেখা যাচ্ছে নবাগত অভিনেতা রিয়াজ লস্কর। এই তিনটি জুটি ধারাবাহিকে মাতিয়ে রেখেছে একেবারে। এছাড়াও পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করছেন ইন্ডাস্ট্রির অনেক পুরনো অভিনেতা অভিনেত্রীরা।

যাই হোক যারা ধারাবাহিকে নিয়মিত দর্শক তারা জানেন ধারাবাহিকে বর্তমানে কি ঘটছে। সম্প্রতি কয়েকদিন আগেই ধারাবাহিকের পর্বের মাঝে একটি মজার দৃশ্য দেখানো হয়। আসলে বর্তমানে দ্যুতির মিথ্যে প্রেগনেন্সি রিপোর্ট সকলেই হাতে পেয়ে গিয়েছে। যার কারণে পরিবারের প্রত্যেককে দ্যুতির উপর ভীষণ ক্ষেপে রয়েছে এবং দাদুর কথা অনুযায়ী সিংহ রায় বাড়ির সমস্ত সুখ বিলাসিতা থেকে বঞ্চিত হয়েছে দ্যুতি এবং পরিবারের প্রত্যেকেই তার সঙ্গে কাজের লোকের মত ব্যবহার করছে বাড়ির সমস্ত কাজ একা হাতে সামলাচ্ছে দ্যুতি। ঘর মোছা, বাসন মাজা, পরিবারের সদস্যদের ফাইফরমাশ খাটা সবকিছুই সে করছে। এইসব করতে করতেই সে জানতে পারে যে রাহুল আসলে সিংহ রায় পরিবারের কেউ নয় রাহুলের মা অর্থাৎ পারমিতা আসলে সিংহ রায় পরিবারের ব্যবসার যিনি ম্যানেজার ছিলেন তার মেয়ে। আর এই কথা শুনে একেবারে শোকে অজ্ঞান হয়ে যায় দুটি।

অজ্ঞান হয়ে যাওয়ার পরেই স্বপ্নে এসে দেখতে পায় সিংহাসনে বসে রয়েছেন খড়ি এবং খড়ির জন্য দ্যুতি নিজের হাতে করে ফলের জুস এনে দিচ্ছে এবং অন্যদিকে রাহুলকে চিৎকার করে ডাকছে ঋদ্ধিমান। ঋদ্ধিমান অফিসে বেরোচ্ছে এবং রাহুল ঋদ্ধিমানের জুতো পোলিশ করে পরিয়ে দিচ্ছে আবার অন্য দিকে দ্যুতি যে নিজের হাতে ফলের রস বানিয়েছে সেটা মোটেই পছন্দ হয়নি খড়ির এবং সেটি দ্যুতির মুখের ওপর ছুঁড়ে দিচ্ছে খড়ি। এই ভয়ংকর স্বপ্ন দেখে তাড়াতাড়ি বিছানা থেকে উঠে এবং আশেপাশে তাকিয়ে দেখে তার শাশুড়ি এবং রাহুল রয়েছে। আসলে দ্যুতি যখন থেকে জানতে পেরেছি যে
রাহুল সিংহ রায় পরিবারের কেউ নয় তখন থেকেই তার মাথায় এই সমস্ত বাজে চিন্তা ভাবনা ঘুরপাক খাচ্ছে তাই জন্যই এই ধরনের স্বপ্ন দেখেছে।

Back to top button