বাংলা সিরিয়াল

মিঠাই ভক্তদের জন্য দারুন সুখবর! বাজারে এসে গেল ‘সিধাই’ চকলেট, তুমুল ভাইরাল ছবি

দীর্ঘ কয়েক মাস পরে আবারো নিজের পুরনো জায়গা ফিরে পেয়েছে মিঠাই ধারাবাহিক। মিঠাইয়ের নতুন টুইস্ট এর মাধ্যমে এই ম্যাজিক সম্ভব হয়েছে। কারণ একঘেয়ে গল্প দেখতে দেখতে দর্শক সত্যি ক্লান্ত হয়ে পড়েছিলেন। তাই গল্পে কিছুটা টুইস্ট দরকার ছিল। আর সেই টুইস্ট এর হাত ধরেই আবারো নিজের প্রথম স্থান ফিরে পেয়েছে ধারাবাহিক। বর্তমানে ধারাবাহিকের দেখানো হচ্ছে মিঠাই মৃত্যুশয্যায়। আর তাতে ভেঙে পড়েছে মোদক বাড়ির সদস্যরা এবং বিশেষ করে সিদ্ধার্থ। আর এতে দর্শকেরা ধারাবাহিক দেখার প্রতি আবার নতুন করে আগ্রহ বেড়েছে। এবারে আগামী দিনের ধারাবাহিককে কি হবে সেটা ধারাবাহিক দেখলেই বোঝা যাবে।

ধারাবাহিকে হাত ধরে মিঠাই এবং সিদ্ধার্থের জুটি দারুণ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। দুজনকে একসঙ্গে দেখতে বেশ পছন্দ করেন দর্শক। তাই জন্যই তো দুজনের জনপ্রিয়তা চারিদিকে ছড়িয়ে পড়েছে। একবার একটি পর্বে দেখানো হয়েছিল মিঠাই একটি রান্নার কম্পিটিশনে গিয়ে বানিয়ে ছিল উচ্ছেবাবু সন্দেশ। তারপর মিঠাই ধারাবাহিকে উচ্ছেবাবু সন্দেশ বানানোর পর থেকেই বেশ ভাইরাল হয়েছিল এই সন্দেশের রেসিপি। বাংলার কোনায় কোনায় ছড়িয়ে পড়েছিল এই মিষ্টির রেসিপি। বহু মিষ্টির দোকানে এখন উচ্ছেবাবু মিষ্টি বেশ জনপ্রিয়। তবে শুধুমাত্র এই উচ্ছে বাবু সন্দেশে আটকে নেই মানুষজন। এরই মধ্যে মানুষ বানিয়ে ফেলেছে উচ্ছেবাবু জিলেপি, উচ্ছে বাবু ফুচকা, উচ্ছে বাবু চিকেন সহ আরো অনেক কিছু। এক কথায় মিঠাই এবং তার উচ্ছে বাবু একেবারে জমজমাট চারিদিকে।

তবে আবারো আরও একটি জিনিস ট্রেন্দিং এ চলে এলো। বর্তমানে নিজের মনের মানুষকে আপনি মনের মতন চকলেট গিফট করতে পারবেন। কাস্টমাইজ চকলেট এখন বাজারে বেশ ট্রেনিংয়ে চলে এসেছে। সেরকমই এক মিঠাই ভক্ত সিদ্ধার্থ এবং মিঠাইয়ের একটি ছবি নিয়ে বানিয়ে ফেলেছে দারুন চকলেট। চকলেটের প্যাকেটের গায়ে সিদ্ধার্থ এবং মিঠাইয়ের একটি মিষ্টি ছবি তার সঙ্গে জনপ্রিয় গানের লাইন। সব মিলিয়ে বর্তমানে মিঠাই এবং সিদ্ধার্থের চকলেট সোশ্যাল মিডিয়া ভাইরাল।

সকলেই এখন এই চকলেট বিক্রেতার খোঁজ করছে। কোথায় পাওয়া যাবে তাদের এই চকলেট তার খোঁজই লেগে পড়েছে সকলে। আপনি যে কোন চকলেট বিক্রেতার কাছেই আপনার মনের মতো কাস্টমার চকলেট বানিয়ে দেওয়ার অনুরোধ করতে পারেন। রাতারাতি এতটাই ভাইরাল হয়ে পড়েছে এই চকলেট যে মানুষ আর অপেক্ষা করতে পারছে না নিজেদের মনের মতো এই চকলেট বানানোর জন্য। বিশেষ করে মিঠাই ভক্তরা এই চকলেট দেখে বেজায় খুশি হয়েছেন।

Back to top button