বাংলা সিরিয়াল

বয়সের পার্থক্য ভুলে কাছাকাছি আসছে অরিন্দম আর নোলক! গোধূলি আলাপের ভিডিও দেখে উচ্ছ্বসিত হয়ে উঠছেন দর্শকরা!

স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক গোধূলি আলাপ। এই ধারাবাহিকে অরিন্দম আর নোলকের অসমবয়সী দাম্পত্য ফুটে উঠেছে। মধ্য বয়সে এডভোকেট অরিন্দম রায় এর সাথে ভাগ্যচক্রের বিয়ে হয়ে যায় বহুরূপী নোলকের। নোলক কে বিয়ে করে অরিন্দম নিজের বাড়িতে নিয়ে আসেন শুরু হয় এক নতুন সম্পর্ক এক নতুন রসায়ন। একটা দীর্ঘ সময় অরিন্দম এবং নোলক একে অন্যের প্রতি দুর্বল হয়ে পড়লেও তারা নিজেদের অনুভূতিগুলোকে একে অন্যের থেকে আড়াল করে রেখেছিলো।

বলা যায় নোলক সবসময় চাইতো অরিন্দম তার নিজের মুখে সত্যি কথাটা স্বীকার করুক। অরিন্দম স্বীকার করুক যে, নোলকের প্রতি তার কী অনুভূতি! শেষমেষ অরিন্দম সকলের সামনে নিজের মনের কথা স্বীকার করে বলা যায় স্বীকার করতে এক রকম বাধ্য হয় নোলকের দুষ্টু বুদ্ধির পাল্লায় পড়ে।

সম্প্রতি গোধূলি আলাপের একটি নতুন ভিডিও দিয়েছে যেখানে দেখাচ্ছে যে অরিন্দম আয়নার ধারে বসে তার চুল দেখছে। নোলক কী হয়েছে জিজ্ঞেস করলে অরিন্দম জানায় তার দুটো চুল পেকে গিয়েছে। এরপর নোলক একটি গল্প বলে অরিন্দমকে। তাদের গ্রামে ঘন্টু বলে একটি ছেলে আছে যার ১৮ বছর বয়স কিন্তু সব চুল পেকে গেছে। এরপর অরিন্দম কে সে জিজ্ঞেস করে, আপনি আমার গল্পটা শুনলেন না?

তখন অরিন্দম বলে, আমি শুনেছি। অল্প বয়সে ঘন্টুর সব চুল পেকে গেছে। নোলক তখন বলে হ্যাঁ কিন্তু আসলে তো তার বয়স তাই নয়। তাই বলছি পাকা চুল তুলবেন না তাতে আরো বেড়ে যাবে। অরিন্দম তখন বলল রাখলেও দেখা যাবে না রাখলেও দেখা যাবে এখন কী করবো? নোলক তখন তাকে বুদ্ধি দেয় পাকা চুল কী করে কালো করবেন সেটা ভাবুন। এই ভিডিওতে আরো দেখা যায় যে, নোলকের হাত ধরে ফেলে অরিন্দম। ভিডিওতে অরিন্দম আর নোলকের কাছাকাছি আসার বিষয়টা স্পষ্টভাবে ফুটে ওঠে।

Back to top button