বাংলা সিরিয়াল

মা ধারাবাহিকের মত লালকুঠিতে ও জিনির বিষয়টা বুমেরাং হয়ে যাবে নাতো? পরে হয়তো দেখা যাবে নকল জিনিই আসল!

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক লালকুঠি। এই ধারাবাহিকে অনেক রহস্য সমাধানের পর দেখানো হয়েছে যে, জিনি আসলে অনামিকা। কিন্তু সে তার মা-বাবার আসল খুনি কে সেটা দেখতে চায়, সে রহস্য সমাধান করতে চায়, সেই কারণে সে সকলের সামনে আসতে চায় না। এই কারণে অনামিকা একজনকে জিনি সাজিয়ে সামনেখানে আনছে। সেই নকল জিনি সকলের সামনে এমন ভাবে নাটক করছে যাতে মনে হচ্ছে সেই আসল জিনি।

ছোট থেকে ছোট কথা, ছোট থেকে ছোট বিষয় সে বলে দিচ্ছে হুবহু। কারণ অনামিকা তাকে এই ভাবেই শিখিয়েছে। কিন্তু গতকালের পর্ব দেখার পর দর্শকদের মনে সন্দেহ দেখা দিচ্ছে। গতকালের পর্বে দেখা যায় নকল জিনি কে বিক্রম এমন একটা প্রশ্ন করে যে প্রশ্নের উত্তর জিনি আর বিক্রম ছাড়া কেউ জানে না। অনামিকা তখন মাথায় হাত দেয় বলে, সব শেষ! ইচ্ছা করে বিক্রম এই প্রশ্নটা করলো।

কিন্তু নকল জিনি সঠিক উত্তর দিয়ে দেয়। অনামিকা তখন ভাবে আমি এই প্রশ্নের উত্তরটা ওকে কবে বলেছিলাম আমার তো নিজেরই মনে পড়ছে না! – এই পর্ব দেখে দর্শকদের মনে হচ্ছে এমনটা নয় তো বিষয়টা বুমেরাং হয়ে যাবে। হয়তো সবশেষে দেখা যাবে নকল জিনিই আসল! এমনটা মনে হওয়ার পিছনে কারণ আছে স্টার জলসার একটি জনপ্রিয় ধারাবাহিক হতো মা, এই ধারাবাহিকেও দেখানো হয়েছিল যে ঝিলিক হিসেবে যাকে সবার সামনে আনা হয়েছিলো, যাকে সবাই ঝিলিক হিসেবে মেনে নিয়েছিল এবং দর্শকদেরকেও দেখানো হয়েছিল যে এই ঝিলিক- পরে দেখা যাচ্ছিলো সে আসলে স্মৃতিভ্রষ্ট একটি মেয়ে। যাকে অন্য একজন ঝিলিক হয়ে উঠতে সাহায্য করেছিল এবং সমস্ত কিছু তোতা পাখির মত বলে বলে শিখিয়ে দিয়েছিল। সে নিজেও এটা জানতো না যে সে ঝিলিক নয়, আসল ঝিলিক আসার পরে সে জানতে পারে। লালকুঠি তেও এমনটা হবে না তো?

এক নেটিজেনের কথায়,“এতো গোপন কিছু নতুন জিনি মনে রাখছে কি করে?? ..আমিও নকল জিনিকে সন্দেহ করছি ..আর আগে কেন অনামিকা হুডি পরা জিনিকে দেখে ভয় পেতো ?গল্পে প্রথম থেকে অনামিকার মনে মনে বলা কথাগুলো অনামিকার মতো ছিল..সে বাইরে নিজেকে লুকাতে পারে কিন্তু মনে মনে কিছু ভাবলে সেটা কি করে লুকাবে ..তবে কি দর্শক কে রহস্য করার জন্যে এটা ??কিন্তু দর্শকের কাছে কিছু মিছেনা ??সেটা লেখক বা পরিচালক ভাবুক এবার .. যেটা দর্শকের কাছে প্রমানিত অনামিকা আর জিনি এক না ..”

Back to top button