বাংলা সিরিয়াল

“গৌরীকে কেউ বাঁচাতে পারে না, শুধু পাশ থেকে আহা উহু করে, সিরিয়াল বন্ধ করে দেওয়া হোক” – “গৌরী এলো” ধারাবাহিকের এই নতুন ট্র্যাক দেখে বিরক্ত হচ্ছেন দর্শক

বর্তমানে বঙ্গ সেরা ধারাবাহিক জি বাংলার “গৌরী এলো”। এই ধারাবাহিকের গৌরী আর ঈশানের কাহিনী বেশ ভালই পছন্দ করেছেন দর্শক। আর তার প্রভাব আমরা টিআরপি রেটিং এ দেখতে পাচ্ছি। কিন্তু বর্তমানে ধারাবাহিকের যে ট্র্যাক চলছে সেখানে দেখানো হচ্ছে গৌরীকে তার বিপদ থেকে কেউ উদ্ধারই করতে পারছে না। এদিকে গৌরী বারবার বলতে থাকে যে তাকে যেন যেতে দেওয়া হয়। কারন সে ভগবানের অংশ নয় সে মানুষ। ওই ঘরে তার দম বন্ধ লাগছে। এদিকে ঈশান বারবার চেষ্টা করেও বাঁচাতে পারছে না গৌরীকে।

ওই বদ্ধ ঘরের মধ্যে গৌরীকে পূজা করছে সকলে। গৌরীর যেমন অসুবিধা হচ্ছে তেমনি তাকে বাঁচানোর জন্যই ঈশান প্রাণপণ চেষ্টা করছে। কিন্তু বারবার সে ভিড় ঠেলে এগিয়ে আসতে পারছে না। ঈশানকে সাহায্য করতে সেখানে রুপম আর দেবতনু আসে। তবে তা তারাও কিছু করতে পারে না। অরুন্ধতী তখন শুভময়কে আলাদা করে ডেকে নিয়ে যায় একটা ঘটনা বলার জন্য। শুভময় জানার চেষ্টা করে যে গৌরীকে রসময় কেন এ ধরনের একটি পরিস্থিতিতে ফেলল। এই হল বর্তমানে গল্পের ট্র্যাক।

এই ধারাবাহিকটি জি বাংলার পর্দায় শুরু হয়েছে খুব বেশিদিন হয়নি। তবে অল্প কয়েক দিনের মধ্যেই পরপর টানা দু সপ্তাহ ধরে বঙ্গ সেরা হয়েছে এই ধারাবাহিক। ধারাবাহিকটি একেবারে আধ্যাত্মিকতার কুসংস্কার গুলিকে তুলে ধরছে। আধ্যাত্মিকতার ভালো দিকগুলিকে নয়। তবুও এসব বিষয়ে মানুষের কৌতুহল কম নয়। সেই কারণেই ধারাবাহিকের টিআরপি রেটিংও বেশ ভালই। শুধু ভালো বললে কম বলা হবে। ধারাবাহিক একটি বর্তমানে বঙ্গ সেরা ধারাবাহিক।

তবে এবার “গৌরী এলো” ধারাবাহিকের আরো একটি দিক নিয়ে সমালোচনা শুরু হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। গৌরীর শ্বশুর বাড়ির পরিবারের সকলেই নাকি তাকে খুব ভালোবাসে। এদিকে গৌরীর কোন বিপদে কেউ তাকে সাহায্য করার জন্য এগিয়ে আসে না। সবাই শুধু পাশ থেকে আহা উহু করে। তাই এখন দর্শকদের মনে প্রশ্ন জেগেছে যে গৌরীকে বাঁচাতে কেউ এগিয়ে কেন আসে না? মুক্তার গায়ে যখন গরম জল ঢালা হলো তখনও কেউ কিছুই বলল না। এই সব উদ্ভট কান্ড দেখার পরে দর্শকের রীতিমতো দাবি তুলছেন যে ধারাবাহিক বন্ধ করে দেওয়া হোক। তবে আমরা সকলেই জানি, টিআরপি রেটিং এ “গৌরী এলো” প্রথম স্থানাধিকারী ধারাবাহিক। যার কারণে এই ধারাবাহিক এত তাড়াতাড়ি বন্ধ হওয়ার তো কোন সম্ভাবনাই নেই।

Back to top button