বাংলা সিরিয়াল

গাঁটছড়া ধারাবাহিকে ঋদ্ধির সম্পত্তি নিলামে যাওয়া থেকে আটকাতে খড়ি মডেল হয়ে অংশ নিলো ফ্যাশন শোতে! খড়ির অন্যরকম রূপ দেখে অবাক ঋদ্ধিমান

স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক গাঁটছড়া। এই ধারাবাহিকে খড়ি ঋদ্ধি, বনি কুনাল ও দ্যূতি রাহুলের জুটি নিয়ে এই গল্প বলা শুরু হলেও এই গল্পের মেন আকর্ষণ হল খড়ি ঋদ্ধি। এই দুই জুটির অসাধারণ অভিনয় এবং তাদের মধ্যেকার কেমিস্ট্রির জন্যই দর্শক এই ধারাবাহিকের প্রতি অধিক পরিমাণে আকৃষ্ট হন। এই ধারাবাহিকে দেখানো হয়েছিল যে,দ্যুতিকে ভালোবেসে বিয়ে করতে চেয়েছিল ঋদ্ধি কিন্তু দ্যুতি বিয়ের রাত্রে রাহুলের সাথে পালিয়ে যায় এরপর খড়ির সাথে বিয়ে হয় ঋদ্ধির।

প্রথমদিকে ঋদ্ধি খড়িকে স্ত্রী হিসেবে মানেনি সে বিয়ে করেছিল খড়িকে শুধু প্রতিশোধের বশে। এরপর ধীরে ধীরে সে খড়ির প্রতি দুর্বল হয়ে পড়ে এবং খড়িও ঋদ্ধির প্রতি দুর্বল হয়ে পড়ে। বর্তমানে দেখানো হচ্ছে যে এই ধারাবাহিকে সিংহ রায় পরিবারের শত্রু ব্যবসাদার দত্তরা খড়িকে না জানিয়েই খড়ির ডিজাইন নিয়ে তাদের গয়নার ডিজাইন বানাতো। এমনকি খড়িকে পুরোপুরি অন্ধকারে রেখে টাকার বিনিময়ে কন্ট্রাক্ট পেপারে সাইন অবধি করিয়ে নিয়েছে।

ধারাবাহিকের সাম্প্রতিককালে যে প্রোমোটি এসেছে সেখানে দেখা যাচ্ছে যে ঋদ্ধি বলছে এইবার যদি তারা সেরা ডিজাইনারের অ্যাওয়ার্ডটা না পায়, তাহলে তাদের সম্পত্তি ব্যবসা সব নিলামে উঠবে। ঠিক এমন সময় জানা যায় যে তাদের ফ্যাশন শোতে অংশগ্রহণ করা সব মডেলদের দ্বিগুণ পয়সা দিয়ে কিনে নিয়েছে দত্তরা। এখন বিনা মডেলে এই ফ্যাশন শো তে কীভাবে তাদের গয়নার কালেকশনের শো হবে এই নিয়ে যখন ঋদ্ধি চিন্তায় পড়ে গেছে তখন দেখা গেল যে সিংহ রায় পরিবারের সব বউরা ফ্যাশন শোতে অংশগ্রহণ করছে মডেলের মতো। খড়ি, নিজেও একজন মডেল হয়ে অংশগ্রহণ করেছেন। যা দেখে অবাক হয়ে যায় ঋদ্ধি। এই শো টি দেখার পর কিছু নেটিজেনরা বলছেন যে এটা ‘কি করে বলবো তোমায়’ এর ফ্যাশন শো এর নকল।

অনেকে আবার বলছেন, ‘আজ আড়ি কাল ভাব’, ‘আঁচল’, ‘বোঝেনা সে বোঝেনা’ এবং ‘কে আপন কে পর ’এও এইরকম ফ্যাশন শো ছিলো। ফ্যাশন শো এর টপিক থাকলেই সেটাকে নকল বলা যায় না।

Back to top button