বাংলা সিরিয়াল

‘জন্ম না দিয়েও মা- এই চরিত্রে অসাধারণভাবে অভিনয় করে দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছেন একাদশ শ্রেণীর আরাত্রিক মাইতি!’খেলনা বাড়ির মিতুলের অভিনয় প্রশংসায় পঞ্চমুখ সকলে!

জি বাংলার একটি জনপ্রিয় ধারাবাহিক খেলনা বাড়ি। এই ধারাবাহিকে দেখানো হয় যে ইন্দ্রর মেয়ে সোহাগ অনেক ছোটবেলায় বাড়ি থেকে হারিয়ে যায় এই সোহাগকেই কুড়িয়ে পায় মিতুল এবং তার নতুন নাম দেয় গুগলি। গুগলিকে সে নিজের আদর যত্ন এবং ভালোবাসায় বড় করে তোলে। একটা সময় পর ইন্দ্রর সাথে মিতুলের বিয়ে হয় কিন্তু ইন্দ্রের সন্তান‌ই যে গুগলি তা ইন্দ্র জানতে পারে না। ধারাবাহিকে অনেক বিষয়ের মাঝে দেখানো হয় গুগলি নকল মা এসে হাজির, শেষমেষ কোর্টের সাথে লড়াই করে মিতুল নিজের মেয়েকে আবার নিজের কাছে ফিরে পায়।

সাম্প্রতিককালে যে ট্রাকটি এসেছে সেখানে দেখানো হচ্ছে যে ইন্দ্রর মেজ ভাই ইন্দ্রর মাথার চুল ও গুগলির মাথার চুল নিয়ে গিয়ে ডিএনএ টেস্ট করে এরপর সেই ডিএনএ স্বাভাবিকভাবে ম্যাচ করলে সে জানতে পারে যে এই গুগলি আসলে সোহাগ। এরপর তাদেরকে মেরে ফেলবার জন্য চক্রান্ত করে। ধারাবাহিকের প্রোমোতে দেখানো হয় যে, মিতুল, গুগলি, ইন্দ্র সবাই মিলে যখন হৈচৈ করতে করতে একটা জায়গায় যাচ্ছে তখন তাদের এক্সিডেন্ট হয় এই এক্সিডেন্ট হয়।

কিন্তু এই সম্পূর্ণ স্টোরির মধ্যে একজন চরিত্র সকলের মন জয় করে নিয়েছেন তিনি হলেন মিতুল চরিত্রের অভিনেত্রী আরাত্রিকা মাইতি। জন্ম না দিয়েও যে মা হওয়া যায় এই চরিত্রটি তার সবথেকে বড় প্রমাণ এবং এই মিতুল চরিত্রটিকে সার্থকভাবে গড়ে তুলেছেন আরাত্রিকা। যে কারণে সোশ্যাল মিডিয়ায় তার প্রশংসা হচ্ছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় একজন নেটিজেন আরাত্রিকার অভিনয় গুণের প্রশংসা করে লিখেছেন, “নিজে জন্ম না দিয়েও যে মা হওয়া যায় সেটা রোজ প্রমাণ করে দিচ্ছে মিতুল ।

নিজের চরিত্রটাকে দিনদিন ছাপিয়ে যাচ্ছে মিতুল ( আরাত্রিকা মাইতি)। কিন্তু এই সিনটা দেখে চোখে জল ধরে রাখতে পারিনি । একটা একাদশ শ্রেণীতে পড়া বাচ্চা মেয়ে এত ভালো অভিনয় কীভাবে করে ? গ্ৰেইট তুমি আরাত্রিকা মাইতি । অনেক দূর এগিয়ে যাও প্রিয় অভিনেত্রী হয়ে”

Back to top button