বাংলা সিরিয়াল

‘দিদিয়া’র থেকে চোখ সরছে না আদৃতের, ফ্যানদের সাথে ছবি তুলতে গিয়েও কৌশাম্বির দিকে ফ্যালফ্যাল করে তাকিয়ে রয়েছে আদৃত, প্রেমিকার দিক থেকে যেন চোখই সরছে না তার?

বর্তমানে টলিপাড়ার হট টপিকগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি হল আদৃত এবং কৌশাম্বির চক্রবর্তী প্রেমের টপিক। বেশ কিছুদিন ধরেই আদৃত এবং কৌশাম্বির প্রেম নিয়ে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে টলিপাড়ায়, দুজনকে প্রায়শই একসঙ্গে দেখা যাচ্ছে। সেটে বেশিরভাগ সময়টাই একসঙ্গে কাটাচ্ছেন দুজনে। সবকিছুই বেশ নজর কাটছে দর্শকদের। কিন্তু এই সমস্ত বিষয় নিয়ে এখনই সরাসরি কোন বক্তব্য রাখতে নারাজ আদৃত এবং কৌশাম্বি। কেউই কোনো রকম কোনো মন্তব্যতে সাড়া দিচ্ছেন না এখনো।

নিজের ব্যক্তিগত জীবন বরাবরই আড়ালে রাখতে পছন্দ করেন আদৃত। কখনোই সোশ্যাল মিডিয়ায় তা সামনে নিয়ে আসেন না। এর আগেও সুপ্রিয়ার সঙ্গে যখন প্রেম করতেন তখন ঠিক একই পদ্ধতি অবলম্বন করেছিলেন আদৃত, এবারও তার অন্যথা হচ্ছে না। যদি সকলকেই তিনি বলেছেন কৌশাম্বি তার বেস্ট ফ্রেন্ড। কিন্তু আদৃত এবং কৌশাম্বির ভাইরাল ছবি অন্য কথা বলছে। দর্শক একেবারেই মানতে প্রস্তুত নয় যে তারা দুজন শুধুই ভালো বন্ধু। গত সপ্তাহতেই কৌশাম্বির জন্মদিন গিয়েছে এবং সেদিন একসঙ্গে সময় কাটিয়েছেন আদৃত এবং কৌশাম্বি। কৌশাম্বির দাদা আর্যেশ রায় হলো আদৃতের ঘনিষ্ঠ বন্ধু। তাদের সকলকে একসঙ্গে সময় কাটাতে দেখা গিয়েছে। এরই মাঝে সামনে এলো মিঠাইয়ের শুটিং ফ্লোরের অদেখা কিছু ছবি।

প্রতিদিনই মিঠাইয়ের ভক্তরা পৌঁছে যায় ভারতলক্ষ্মী স্টুডিওতে তাদের প্রিয় অভিনেতা-অভিনেত্রীর সঙ্গে দেখা করতে। সেরকমই ঐদিনও মিঠাইয়ের বেশ কিছু ভক্ত পৌছে গেছিল ভারতলক্ষ্মী স্টুডিওতে এবং সেখান থেকে ভাইরাল হওয়া বেশ কিছু ছবিতে ধরা দিয়েছে কৌশাম্বি এবং আদৃত। দুই জন ফ্যানের সঙ্গে ছবি তুলতে দেখা গেছে শ্রীনন্দা, শ্রীতমা এবং জামাই রাজীব কুমার ও উচ্ছেবাবুকে। ছবির একদম বাঁ দিকে দাঁড়িয়ে রয়েছে কৌশাম্বী, তাঁর পরনে সাদা রঙের হ্যান্ডলুম শাড়ি। আর সেখান থেকে বেশ খানিকটা দূরে দাঁড়িয়ে রয়েছেন আদৃত ‘ফ্যালফ্যালিয়ে’ তাকিয়ে রয়েছে কৌশাম্বির দিকে।

আর এই ছবি ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে। সকলেরই একটাই কথা ‘ছবি কথা বলে’। তবে কৌশাম্বি এবং আদৃত এর এই সম্পর্কের কথা জানাজানি হওয়ার পর থেকেই বারবার তাদের সম্পর্কের মাঝে নাম জড়িয়েছে সৌমিতৃষার। এই ব্যাপারে ভীষণ বিরক্ত অভিনেত্রী। অভিনেত্রীর দাবি ‘আদৃত যে কারো সঙ্গে প্রেম করতে পারে, আমিও কারো সাথে প্রেম করতে পারি এটাই স্বাভাবিক। দর্শকেরা আমাদের অনস্ক্রীন জুটি বেশ পছন্দ করে তাই অফস্ক্রিনে হয়তো আলাদা দেখতে পছন্দ করেন না। কিন্তু দর্শকের বোঝা উচিত এটা আমাদের সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত জীবনের ব্যাপার।’

Back to top button