বাংলা সিরিয়াল

৮ লাখের শাড়ি, নিজেও ২০০ শাড়ি অর্ডার করেছিলেন ডোনা গাঙ্গুলী, শুনে চোখ কপালে উঠলো সৌরভ গাঙ্গুলীর

বাংলার বিনোদন জগতের অন্যতম একটি অংশ হলো রিয়েলিটি শো। আর এই রিয়েলিটি শো গুলির মধ্যে অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি শো হলো জি বাংলার দাদাগিরি। সপ্তাহের শেষে শনি ও রবিবার টিভির পর্দায় মহারাজা সৌরভ গাঙ্গুলি জনপ্রিয় এই শো নিয়ে হাজির হন। সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে সেলিব্রিটিরা সকলেই এই গেম শো তে অংশ নেন দাদার সঙ্গে। সম্প্রতি দাদাগীরির মঞ্চে হাজির হয়েছিলেন নদীয়া জেলার বাসিন্দা বীরেন কুমার বসাক। নদীয়া জেলায় ফুলিয়া শাড়ির ব্যবসায়ী তিনি। তার কাছে সমস্ত রকম দামের শাড়ি রয়েছে। রয়েছে ৮ লাখের দামের শাড়িও। এই শাড়ির মূল্য শুনে সৌরভ গাঙ্গুলীর চক্ষুচড়কগাছ। তিনি সঙ্গে সঙ্গে বলে ওঠেন এই শাড়িটা মুকেশ আম্বানির স্ত্রী ছাড়া আর কেউ পড়তে পারবে না।

নানা কথাবার্তার মাঝে বীরেন বাবু জানান যে ডোনা গাঙ্গুলী সঙ্গেও কথা হয়েছে তার। আর এই শুনে সৌরভ গঙ্গুলি বলে ওঠেন “ও বাবা উনি ওখানে পৌঁছে গেছেন” বীরেন বাবু জানান ডোনা গাঙ্গুলী ২০০ শাড়ির অর্ডার দিয়েছিলেন। তারা নাচের অনুষ্ঠানের জন্য। কিন্তু বীরেন বাবুর সেসময় শাড়ির যোগান দিতে পারেনি। বড়ো দোকান ছিল না তাই ২০০ সালের অর্ডার তিনি নিতে পারেননি সঙ্গে সঙ্গে সৌরভ গাঙ্গুলী জানান যে ‘আপনি ২০০ শাড়ি নিয়ে আসলে আমায় ফোন করে জানাবেন।”

এরপরে বীরেন বাবু নিজের শাড়ির কিছু কালেকশন সৌরভ গাঙ্গুলী এবং বাকি সকলকে দেখায়। সঙ্গে সঙ্গে সেই ৮ লাখের শাড়িটিও তুলে ধরেন সকলের সামনে। শাড়িটি বুনতে সময় লেগেছিল প্রায় দু’বছর। গনেশ দেবতার নানারকম মূর্তি দিয়ে বোনা হয়েছে এই শাড়িটি তবে বাবু জানান শাড়ির দাম ৮ লাখ হলেও তিনি বিক্রি করেননি। এরপর পুরস্কার স্বরূপ সৌরভ গাঙ্গুলীর হাতে তুলে দেন তার ছবি দিয়ে তৈরি একটি ওয়ালহ্যাঙ্গিংও। বীরেন বাবু জানান তার শাড়ীর ব্যবসা অনেক দূর অব্দি ছড়িয়েছে দেশ বিদেশ মুম্বাই দিল্লি বিভিন্ন শহরে তাঁর শাড়ীর বিক্রি হয় সেলিব্রিটি রাও তার থেকে শাড়ি কেনেন।

Back to top button