বাংলা সিরিয়াল

‘অভিনেত্রীরা‌ও ব্যথা পান তবে তারা যন্ত্রণা লুকিয়ে মানুষকে এন্টারটেইন করেন’ দিদি নাম্বার ওয়ানের মঞ্চে রুকমার পড়ে যাওয়ায় মানুষজন হাসাহাসি ট্রোলের উত্তরে মুখ খুললেন রুকমা ফ্যান

গত রবিবারের এপিসোড জি বাংলা দিদি নাম্বার ওয়ান এর মঞ্চে এসেছিল তিনটি জি পরিবার। এরা হলো- লালকুঠি, খেলনা বাড়ি ও উড়ন তুবড়ি। এই তিন টিমের সদস্যরা এসেছিলো খেলতে। প্রত্যেকেই জমিয়ে খেলেছে। কিন্তু জয়ী তো একজনকেই হতে হয়। তাই জয়ী হয়েছে অনামিকা ও সৌর্য, অর্থাৎ লালকুঠির টিম। লালকুঠির টিম জয়ী হওয়ায় সকলের মুখেই হাসি ফুটেছে।

তবে এই শো চলাকালীন একটা টাস্কে রুকমা সৌর্যর সাথে পড়ে যায়, যা নিয়ে অনেকেই হাসাহাসি করেছে, কিন্তু বিষয়টি এতটাও হাসাহাসি করার মত জিনিস নয়। কারণ একজন অভিনেত্রী অভিনয় করলেও সে পড়ে গেলেও তার ব্যথা লাগে। তবে সবসময় তার ব্যথাটা লুকিয়ে মানুষকে এন্টারটেইন করে। তাই রুকমাকে নিয়ে যারা হাসাহাসি করছিলেন তাদের উদ্দেশ্যে একজন নেটিজেন লিখেছেন,“ দিদি নাম্বার ওয়ান চলাকালীন একটি টাস্ক এ অনামিকা মানে রুকমা রায় খেলা চলাকালীন সময় সৌর্য তাকে নিয়ে পরে যায়, এই বিষয়টি নিয়ে অনেকেই হাসাহাসি করছে তবে আমার খুবই খারাপ লেগেছে। আমি প্রথম থেকেই রুকমা দির খুব বড় ফ্যান। তিনি প্রচণ্ড ব্যথ্যা পেয়েছে তা বোঝাই যাচ্ছে তবুও হাসি মুখে শেষ করেছে শুটিং টি সত্যিই অভিনেতা /অভিনেত্রীদের আমরা যেমন দেখি তেমনি ভাবি তবে তার পেছনে যে কত কষ্ট আছে সেটা একজন অভিনেত্রী বা অভিনেতা ই জানে (আমি রুকমা ফ্যান হিসেবে গর্বিত)”

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য বর্তমানে লালকুঠিতে প্রায় গত একটা সপ্তাহ ধরে বিক্রমকে দেখায় নি। বিক্রম না থাকায় অনেক কিছুই ঘটে গেছে সেখানে। তবে অনামিকার সন্দেহ বিক্রম এরকম মানুষ নয় যে বাড়ির লোককে ধোঁয়াশায় রেখে
নিশ্চিন্তে থাকবেন। নিশ্চয়ই কিছু একটা ঘটেছে এরপরই সাম্প্রতিককালের প্রোমোতে দেখানো হচ্ছে যে কিডন্যাপ করা হয়েছে বিক্রমকে! অনামিকা কি পারবে বিক্রমকে উদ্ধার করে আসল রহস্য উদঘাটন করতে!

Back to top button