বাংলা সিরিয়াল

অঙ্কুরের সাথে আরেকবার ফুলঝুরির বিয়ে ঠিক হলেই নিখোঁজ লালন ফিরে আসবে! সমুদ্র সৈকতে লালনের নিখোঁজ হওয়ার পর মৃত্যু সংবাদ আসার ভিডিও দেখে বলছেন নেটিজেনদের একাংশ!

স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘ধুলোকণা’ তে দেখা গেছে যে, দীর্ঘদিন পর ফুলঝুরির জীবনে একটু সুখ নেমে এসেছে। চড়ুইয়ের শয়তানির থেকে রেহাই পেয়ে নতুন করে জীবন শুরু করেছে লালন ও ফুলঝুরি। অঙ্কুর বাবু সাহায্যে বিয়ে হয়েছে দুজনের তারপর সুন্দরভাবে জীবন শুরু করেছে তারা। এইবার দেখা যাচ্ছে যে সবাই মিলে একসাথে ঘুরতে এসেছে সমুদ্রে।

বিয়ের পর সমুদ্রে যখন সবাই মিলে আনন্দ করছে তখন‌ই লাল ফুলের জীবনে আবার একটা ঝড় নেমে এলো। হ্যাঁ সমুদ্রে স্নান করতে গিয়ে চড়ুইয়ের মায়ের ষড়যন্ত্রে নিখোঁজ হয়ে গেল লালন। লালন কে খুঁজে না পেয়ে শোকে আর্তনাদ করতে শুরু করল ফুলঝুরি। এরপর দেখা যায় লালন কে খুঁজবার জন্য যখন পুলিশে খবর দেওয়া হয় তখন পুলিশ দুঃসংবাদ বয়ে নিয়ে আসে ফুলঝুরির কাছে।

ফুলঝুরি র কাছে ফুল ঝুরির কাছে এসে সে জানায় যে একটা বডি পাওয়া গেছে তার মুখটা ক্ষতবিক্ষত কিন্তু আপনারা যে জামা কাপড় দিয়েছিলেন তার সাথে মিলে যাচ্ছে। এই কথা শুনে ফুলঝুরি আর্তনাদ করে ওঠে সে বলে আমার লালন আমাকে ছেড়ে কোথাও যেতে পারে না। কাঁদতে শুরু করে সে এবং পরিবারের সবাই মিলে তাকে বোঝাতে শুরু করেন তাকে সান্তনা দিতে এগিয়ে আসে।

এই অংশে ফুলঝুরি থেকে শুরু করে সবার অভিনয় রীতিমত চোখে পড়ার মতো। দর্শকরা মুগ্ধ হয়ে যাচ্ছেন ফুল অর্থাৎ মানালি দের অভিনয় দেখে এতটাই রিয়েল সে অভিনয় করছে যে দেখে মনেই হচ্ছে না এটা সত্যি নয়। এই ভিডিওর কমেন্ট বক্সে অনেকে আবার লিখেছেন, সেই ঘুরেফিরে একই কাহিনী এরপর অঙ্কুরবাবু আবার আসবে ফুলের জীবনে তাকে সান্ত্বনা দিতে তার পাশে দাঁড়াতে। তখন সবাই বোঝাবে অঙ্কুর কে বিয়ে করবার জন্য। এরপর যখন ফুল ভাববে নতুন করে অঙ্কুরের সাথে জীবন শুরু করার কথা, তখনই লালন ফিরে আসবে। বাংলা সিরিয়ালের নির্মাতারা কি এর বাইরে আর কিছু ভাবতে পারেন না?

Back to top button