বাংলা সিরিয়াল

‘একবার বেরোতে পারলে সাহেবকে দেখে নেব’ সাহেবের হাতে বন্দি থাকা চিঠির শপথ! নতুন দিকে মোড় নিল এই ধারাবাহিক

স্টার জলসায় সদ্য শুরু হ‌ওয়া ধারাবাহিক হলো সাহেবের চিঠি। এই ধারাবাহিকের প্রোমোতে দেখা যাচ্ছে যে একজন রকস্টার গায়ক ও একজন চিঠি ফেরি করে বেড়ানো ডাক পিয়নের একে অন্যের ভরসা হয়ে ওঠার গল্প। হ্যাঁ একজন বিখ্যাত রকস্টার যাকে সবাই ভগবান হিসেবে মনে করেন, গানের গলার কারণে যার এত ফেম! সেই মানুষটাই কি না জীবনে সবথেকে অসহায়! তার পা নেই। তাই এত খ্যাতির আড়ালে যন্ত্রণায় ভোগা একজন মানুষ হলেন রকস্টার সাহেব। যে তার সত্যিটা সকলের থেকে লুকিয়ে রাখতে চান, কাউকে প্রকাশ করতে চান না।

কারণ তিনি মনে করেন যে, যদি তার সত্যিটা কোনভাবে প্রকাশ পায় যে তার পা নেই, তাহলে সবাই তাকে অসহায় ভাববে, তার সকল খ্যাতি হারিয়ে যাবে। এই রকস্টারের সাথেই বারবার ভাগ্যচক্রে দেখা হয়ে যায় ডাক পিয়ন চিঠির। কখনো রাস্তায় যেতে যেতে সাহেবের গাড়ির সামনে চলে আসে চিঠির সাইকেল। সাহেবের গাড়ি ধাক্কা মারে চিঠিকে, অ্যাক্সিডেন্ট হয় দুজনের। কখনো বা ভরা মঞ্চে দুর্ঘটনার হাত থেকে সাহেবকে বাঁচায় চিঠি। কিন্তু এত কিছুর পরেও দুজনের সম্পর্ক সহজ হয় না দুজনের সম্পর্কের মধ্যে একটা তিক্ততা তৈরি হয়ে যায়।

সম্প্রতি স্টার জলসার থেকে একটি প্রোমো প্রকাশ করা হয়েছে যেখানে দেখা যাচ্ছে যে, সাহেব যখন নিজের জীবনের সত্যিটা সকলের থেকে লুকিয়ে রাখতে চাইছে সেই মুহূর্তে চিঠির বোঝা হাতে নিয়ে সাহেবের সামনে হাজির হয় চিঠি। তার সত্যি চিঠি জেনে ফেলেছে এবং সকলকে তা জানিয়ে ফেলবে এটা ভেবে ভয়ে সাহেব চিঠিকে বন্দি করে রাখে। সাহেবের বাড়ির একটি ঘরে তালা বন্ধ করে রাখা হয় চিঠি। অন্যদিকে চিঠি বলে, একবার বেরোয় এখান থেকে তারপর ওনাকেও আমি দেখে নিচ্ছি।

Back to top button