বাংলা সিরিয়াল

দিদি খড়ি কে বাঁচানোর জন্য থানায় গিয়ে পুলিশ অফিসার দের মারধর করল বনি! ভয়ে থানা ছেড়ে পালালো ‘কলকাতা পুলিশ’, ‘গাঁটছড়া’ ধারাবাহিকের মজাদার ভিডিও ভাইরাল

আবারও গল্পের নতুন মোড় এসেছে গাঁটছাড়া ধারাবাহিকে। স্টার জলসার এই ধারাবাহিক শুরুর সময় থেকে দর্শকদের অত্যন্ত প্রিয় হয়ে উঠেছে। যার কারণে টিআরপি তালিকায় বিরাট বড় পরিবর্তন এসেছে। এতদিন পর্যন্ত বাংলা ধারাবাহিকের টপার ছিল জি বাংলার মিঠাই কিন্তু গাঁটছড়া ধারাবাহিক শুরু হওয়ার পর থেকে এই ধারাবাহিকটি দর্শকের মনে জায়গা করে নিয়েছে এবং টিআরপি তালিকাতেও প্রথম স্থান অধিকার করে নিয়েছে। গল্পের নিত্যনতুন টুইস্ট, খড়ি ঋদ্ধিমান এর কেমিস্ট্রি সবকিছু দর্শককে আকৃষ্ট করে তুলছে দিনে দিনে।

সম্প্রতি ধারাবাহিকে আবারও নতুন চমক এসেছে। সিংহরায় জুয়েলার্সের বহু পুরনো কাস্টমার মিস্টার বাজুরিয়ার মেয়ের বিয়ের গয়না সংরক্ষিত রাখার দায়িত্ব ঋদ্ধিমান খড়ির হাতে তুলে দিয়েছিল। কিন্তু খড়ি এই দায়িত্ব নিতে বারবার অস্বীকার করেছিল সে বলছিল সেই দায়িত্ব নেওয়ার যোগ্য নয় হে পারবেনা এত দামি গয়নার দায়িত্ব নিজের কাছে রাখতে। আর সিংহ রায় বাড়িতে তো খড়ির শত্রুর অভাব নেই। সিংহরা বাড়িতে অনেকেই খড়ির ক্ষতি চায়। যার জন্য সুযোগ বুঝে কেউ লকার থেকে গয়না গুলো বার করে সরিয়ে দেয়। পরের দিন যখন বাজুরিয়া গয়না গুলো নিতে আসে তখন খালি বাক্স দেখে মেজাজ হারিয়ে ফেলে এবং পুলিশ ডেকে খড়ি কে গ্রেপ্তার করান। যার ফলে খড়ি কে থানায় ধরে নিয়ে যায় পুলিশ।

খড়ি কে গ্রেফতার করে নিয়ে যাওয়ার পর থানায় খড়ি কে বাঁচাতে আসবো বনি এবং কুনাল। থানায় এসে নিজের মেজদিকে লকআপে দেখে দেখে বনি রেগে আগুন হয়ে যায়। লাঠি নিয়ে যায় পুলিশ অফিসারদের মারতে আসে। তার মেজদি কে যাতে লকার থেকে ছেড়ে দেয়া হয় তার জন্য হুমকি দিতে থাকে সকলকে। সম্প্রতি বনির এই ভিডিওটি ফেসবুকে পোস্ট করা হয়েছে এবং পোস্ট করা মাত্রই ভাইরাল। ইতিমধ্যেই এক হাজার মানুষ এই ভিডিওটি লাইক করেছে। সকলেই হেসে কুটোপাটি এই ভিডিও দেখে। কমেন্ট বক্সে একেকজন একেকরকম মতামত দিয়েছে। কেউ লিখেছে ‘একদম ঠিক কাজ করেছে বনি’ আবার কেউ লিখেছে ‘বাবা হাসতে হাসতে পেটে ব্যথা হয়ে গেল’। আবার একজন লিখেছে ‘যত সব ন্যাকামো’ এই ধরনের কমেন্ট কমেন্ট বক্সে করেছেন নেটিজেনরা।

Back to top button