বাংলা সিরিয়াল

বিজ্ঞান থেকে ইতিহাস সব প্রশ্নে বোধিসত্ত্বের উত্তর শুনে হা হয়ে গেল নতুন স্কুলের টিচাররা! ছোট্ট বোধিকে দয়া করে এমনি রাখবেন অনুরোধ নেটিজেনদের!

বর্তমানে জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক হলো বোধিসত্ত্বের বোধ বুদ্ধি। টিআরপির ফলাফলেও এই ধারাবাহিকের জনপ্রিয়তা প্রকাশ পায়। ওপেনিং সপ্তাহে ‘বোধিসত্ত্বের বোধ বুদ্ধি’ ধারাবাহিকটি বেশ ভালো মতো টিআরপি অর্জন করেছে। রাত ১০টার স্লটে এই ধারাবাহিক ৬.০ টিআরপি পেয়েছে, যা রীতিমত তাজ্জব করে দেওয়ার মতো ব্যাপার। আসলে এই ধারাবাহিকটি শিশুদের ওপর তৈরি করা হয়েছে, সহজ সরল শিশু মনস্তত্ত্ব শিশুদের ভাবনা-চিন্তা ইত্যাদি কে এই ধারাবাহিকে এত বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে যে স্বাভাবিকভাবে এই ধারাবাহিক দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছে।

জি বাংলায় ভুতুর পর এই বোধিসত্ত্বের বোধ বুদ্ধি বাচ্চাদের জন্য একটি ধারাবাহিক যা যে কোনো বাচ্চাও বসে দেখতে পারবে এবং সমান তালে আনন্দ উপভোগ করতে পারবে। ধারাবাহিকে বোধিকে দেখানো হয় যে সে ক্লাস ফোরের একটি স্টুডেন্ট কিন্তু জানার প্রতি তার অসীম আগ্রহ, তার ভীষণ কৌতূহল। যে কোন বিষয়ের গভীরে ঢুকতে চায় সে, জ্ঞানের দ্বার কে খুলে ফেলতে চায় এবং সে যখন কোন বিষয় বলতে শুরু করে তখনও সংক্ষিপ্ত উত্তরের পরিবর্তে বিস্তৃতভাবে বলতে শুরু করে।

‘বোধিসত্ত্বের বোধবুদ্ধি’তে বর্তমানে দেখানো হচ্ছে যে বোধিকে একটি নতুন স্কুলে ভর্তি করা হচ্ছে, সেখানে তাকে বিজ্ঞানের নিউটনের প্রশ্ন জিজ্ঞেস করা হোক অথবা ভূগোলের পাললিক শিলা, অংকের কোন তুখোর সমস্যা জিজ্ঞেস হোক অথবা ইতিহাসের কোন প্রশ্ন অথবা বাংলা- সবেতেই জমিয়ে উত্তর দিচ্ছে বোধিসত্ত্ব। শুধু উত্তর দিচ্ছে না সে বিজ্ঞানের সাথে বাংলা সাহিত্য মিলিয়ে মিশিয়ে নিজের বোধ বুদ্ধি খাটিয়ে এত অভূতপূর্ব উত্তর দিচ্ছে যে স্কুলের প্রিন্সিপাল থেকে শুরু করে সমস্ত স্যাররা অবাক হয়ে যাচ্ছেন সকলেই বলতে বাধ্য হচ্ছেন যে হ্যাঁ তুমি অঙ্ক, বিঞ্জান, ইতিহাস, ভূগোল সবটাই বেশ ভালো মত জানো। আসলে বোধি কেবল পড়াটাকে পড়ার মতো করে পড়ে না।

সে পড়া করবার সময় শিক্ষার মধ্যে থাকা আনন্দকে অনুভব করে তাই যেকোন বিষয়ের অনেক গভীরে গিয়ে সে ভাবনা চিন্তা করে তাই তার বয়সের অন্যান্য ছাত্রদের থেকে সে চিন্তা ভাবনা এবং শিক্ষায় অনেকটা এগিয়ে যায়, যা দেখে এবং বুঝতে পেরে সকলেই অবাক হয়ে যান। জি বাংলা তরফ থেকে ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়ার পর অনেকেই কমেন্টে লিখেছেন যে, বোধিকে দয়া করে এরকমই সহজ সরল রাখবেন, বাচ্চাদের মধ্যে এই সরলতা এই বুদ্ধির বিকাশ দেখতে বেশ ভালো লাগে।

Back to top button