বাংলা সিরিয়াল

‘ধূলো গেলো, বালি এলো এরপর মনে হয় ঘূর্ণিঝড় আসবে’! বালি ঝড়ের প্রোমো নিয়ে প্রশংসার সাথে সাথে ধারাবাহিকের নাম নিয়ে চলছে হাসাহাসি!

কৌশিক রায়,ইন্দ্রাশিস রায় ও তৃণা সাহা অভিনীত ধারাবাহিক বালি ঝড়ের প্রোমো সম্প্রতি দিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে একটি সুন্দর প্রেমের গল্প এই ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে। এই ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে যে, তৃণার চরিত্রের নাম জোড়া, ইন্দ্রাশিসের চরিত্রের নাম স্রোত আর কৌশিকের চরিত্রের নাম মহার্ঘ্য ব্যানার্জী।

প্রোমোতে দেখা যাচ্ছে যে, জোড়ার বাবা সমুদ্র সেন একজন পলিটিকাল ক্যারেক্টার, এই মানুষটি বিপুল ভোটে জয়ী হয়ে বক্তৃতা দিতে মঞ্চে উঠেছেন, সেই সময় তার মেয়ে জোড়া তার কাছে আসে এবং তার পাশে দাঁড়ায় মহার্ঘ্য। সমুদ্র সেন জয়ী হয়ে মঞ্চে বক্তৃতা দিতে ওঠেন বিনা স্পিচে, তার মনে যা আসে তাই তিনি বলবেন।

এরপর সমুদ্র সেন বলতে থাকেন যে তার রাজনৈতিক ব্যাটেল তিনি তুলে দেবেন তার মেয়ে, জোড়ার হাতে আর তার পাশে দাঁড়ানো মহার্ঘ্যর বিপুল অবদান আছে তার ভোটে জয়ের পিছনে, তাই তিনি ঠিক করেছেন তার মেয়ের সাথে মহার্ঘ্যর বিয়ে দেবেন। এই কথা শুনে ওই জায়গা থেকে বেরিয়ে যায় স্রোত।

স্রোত জোড়া কে বলে আজ থেকে তোমার আমার পথ আলাদা বলে সে বেরিয়ে যায়, অন্যদিকে জোড়া বলে আমি তোমার ছাড়া কারোর কাছে যাব না, এইদিকে দেখা যায় মহার্ঘ্য এসে জোড়ার হাত ধরেছে। এই প্রোমো দেখে একজন নেটিজেন লিখেছেন যে,“ প্রোমো টা ভীষণ সুন্দর লেগেছে! নতুন ধরনের কনসেপ্ট….জোড়া আর স্রোত দুজন দুজনকে ভালোবাসে কিন্তু জোড়ার বাবা অন্য আর একজনের সাথে তার বিয়ে ঠিক করেছে….

আর যার সাথে বিয়ে ঠিক করেছে সে খলনায়ক!!!!লিনা ম্যামের সিরিয়াল আমার শুরুর দিকে খুব ভালো লাগে! কিন্তু পরবর্তী কালে গল্প টার স্টোরি তৃতীয় ব্যক্তি নিয়ে এমন মাতামাতি করে আমার দেখতে আর ভালো লাগে না!
অনেক শুভকামনা এই নতুন ধারাবাহিকের জন্য,আশা করব সফল হবে…. ”

আরেকজন আবার লিখেছেন যে,“ধূলো গেলো, বালি এলো এরপর মনে হয় ঘূর্ণিঝড় আসবে”

Back to top button