বাংলা সিরিয়াল

মা বাবার সঙ্গে বসে ছেলেমেয়েরা মদ খাচ্ছে! সমাজকে কোন বার্তা দিচ্ছে পর্ণার পরিবার? একটু বেশি আধুনিকতা দেখানো হয়ে যাচ্ছে না! নিম ফুলের মধু’র গল্প নিয়ে ধুন্ধুমার সোশ্যাল মিডিয়া

বাংলা টেলিভিশনের (Bengali Serial)দুনিয়াতে এই মুহূর্তে প্রথম সারির ধারাবাহিক গুলির মধ্যে অন্যতম নিম ফুলের মধু(Nim Phuler Modhu)। জি বাংলায় সদ্য শুরু হয়েছে এই ধারাবাহিক। যার মুখ্য ভূমিকায় দেখা যাচ্ছে অভিনেত্রী পল্লবী শর্মা (Pallavi Sharma)এবং অভিনেতা রুবেল দাসকে(Rubel Das)। যদিও শুরু থেকেই এই ধারাবাহিকের গল্প নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে চর্চার অন্ত ছিল না। তবে বর্তমানে এক বিশেষ পর্ব নিয়ে হইচই পড়ে গিয়েছে সামাজিক মাধ্যমে।

যারা এই ধারাবাহিকে নিয়মিত দর্শক তারা জানেন বর্তমানে ধারাবাহিকে সদ্য বিয়ে হওয়া পর্ণা এবং সৃজন দ্বিরাগমনে গিয়েছে। সেখানে পর্ণার বাবা নতুন জামাইয়ের সঙ্গে একটু আনন্দ করবে বলে ম’দ এবং গান-বাজনার আয়োজন করেছে। মুহূর্তে তাদের বাড়িতে গিয়ে উপস্থিত হয় সৃজনের মা এবং বৌদি। তারা সেখানে পৌঁছে দেখে সৃজন তার শাশুড়ি মায়ের হাত ধরে নাচছিল। যা দেখে একেবারে তেলে বেগুনে জ্বলে ওঠে তার মা।

এই ঘটনার পরেই সৃজনের বাড়িতে লেগে গিয়েছে আগুন। যেহেতু সৃজনের পরিবার একটু সেকেলে প্রকৃতির বড়দের সঙ্গে একসঙ্গে বসে মদ খাওয়া তাদের হাত ধরে নাচানাচি করা পছন্দ নয় তাদের। অন্য দিকে পর্ণার পরিবার শুরু থেকেই খুব আধুনিক। যে কারণে শুরু থেকেই এদের দুজনকে নিয়ে সমস্যা ছিল। তবে এবারের সমস্যা গুরুতর।

তবে এই দৃশ্য দেখে ধারাবাহিকের পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়াতেও(Social Media) দুটি ভাগ হয়ে গিয়েছে। দর্শকদের একাংশ বলছে মধ্যবিত্ত বাড়িতে ছোটরা এবং বড়রা একসঙ্গে বসে মদ খায়। এতটাও আধুনিক নয় কেউ। এটা কখনোই আভিজাত্য হতে পারে না। আবার উল্টোদিকে দর্শকদের আরেক অংশ বলছে আধুনিক যুগের বাবা মায়েরা যুগের সাথে তাল মিলিয়ে সবকিছুকেই খুব স্বাভাবিকভাবে নেয়। এগুলো এখনকার সময়ের একটি ধারা।

Back to top button