বাংলা সিরিয়াল

সভ্য সমাজে বাস করার যোগ্যতা নেই ইন্দিরার! মুখের ওপর জানিয়ে দিল বিক্রম, তবে তাকে পাত্তা না দিয়ে পান্তা ভাত আর লঙ্কাতে মন দিল ইন্দিরা, জোর জব্দ হল বিক্রম

স্টার জলসায়(Star Jalsha) যে কয়েকটি নতুন ধারাবাহিক শুরু হয়েছে তাদের মধ্যে অন্যতম বাংলা মিডিয়াম(Bangla Medium)। কয়েক দিনের মধ্যেই নীল-তিয়াসা(Neel Bhattacharya- Tiyasa Lepcha) জুটি ম্যাজিক দেখাতে শুরু করে দিয়েছে। এর আগে জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক কৃষ্ণকলিতে একসঙ্গে দেখা গিয়েছিল তাদের। দর্শকদের তাদের অভিনয়ে এতটাই মনে গেঁথে গিয়েছিল যে ফের স্টার জলসার পর্দায় ফিরিয়ে আনা হলো এই জুটিকে।

ধারাবাহিকের গল্প অনুযায়ী গ্রামের মেয়ে ইন্দিরা। যার পড়াশোনা পুরোটাই বাংলা মিডিয়ামে। যে শহরের এক নামী ইংরেজি মাধ্যম স্কুলে শিক্ষকতার চাকরি নিয়ে এসেছে কলকাতায়। তবে স্কুলে ঢোকা মাত্রই নানারকম তিরস্কারের শিকার হতে হয় তাকে। শুধু তাই নয় বাংলা মিডিয়াম বলে ছাত্রছাত্রীরা পর্যন্ত খোঁটা দেয় তাকে। তবে সেসব কোন কিছুই পাত্তা দেয় না ইন্দিরা। নিজের জায়গায় ঠিক থেকে মন দিয়ে কাজ করে চলেছে সে। একইসঙ্গে অন্যায়ের প্রতিবাদ করতেও দেখা দিয়েছে তাকে।

সম্প্রতি ধারাবাহিকের এক পর্বে দেখানো হয়েছে ইন্দিরা যে স্কুলে শিক্ষকতা করে তার মালিকের বাড়িতে এসেছে। সেখানে বিক্রম এবং তার পরিবার একসঙ্গে খেতে বসলে ইন্দিরাকে পান্তা ভাত খেতে দেওয়া হয় রান্নাঘরের মেঝেতে। অন্যদিকে বিক্রমের পরিবার ঠিক করে পামেলার সঙ্গে তার বিয়ে দেবে। বিয়ের কথাবার্তার মাঝে মাটিতে পান্তা ভাত এবং লঙ্কা নিয়ে বসে পড়ে ইন্দিরা। তাদের কথা শুনবে না বলে নামতা পড়ে পড়ে খেতে থাকে সে। এই দেখে বিক্রম তার কাছে এলে জানতে চাই সে এমন অদ্ভুত ব্যবহার কেন করছে। উত্তরে ইন্দিরা জানায় তাদের আলোচনা শুনবে না বলে নামতা পড়ে পড়ে ভাত খাচ্ছে।

সব শোনার পর বিক্রম তাকে জানায় সে আসলে সভ্য সমাজে বাস করারই যোগ্য নয়। যদিও তার কথা বিশ্বাস পাত্তা দেয় না ইন্দিরা। মন দিয়ে খেতে থাকে তার ভাত। তবে তাদের দুজনকে কথা বলতে দেখে বিক্রমের ঠাকুমা এবং বাবা। দুজনের ইন্দিরা এবং বিক্রমের জুটি বেশ মনে ধরেছে। ঠিক করতে থাকে যদি তাদের বিয়ে দেওয়া যায় কোনভাবে।

তাই আলাদা দিয়ে কথাবার্তা বলতে শুরু করে তারা। যদিও বিক্রমের বাবা জানায় তার মা কোন কিছুতেই তার পরামর্শ নেয় না। কিন্তু ঠাকুমা আশ্বাস দেয় গুরুদেবের কাছে সমস্ত খবর জেনে এসে তবেই দুজনেই বিয়ের ব্যবস্থা করবে সে।

এখন দেখার বিক্রম এবং ইন্দিরার সম্পর্ক কোন দিকে মোর নেয়। কারণ তারা তো সাপ আর নেউল ছাড়া অন্য কিছু নয়। আগে অন্যকে দেখলেই ফোঁস করে ওঠেন। তাদের মধ্যে কি আদৌ কোন প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠবে। তার জন্য চোখ রাখতে হবে স্টার জলসার পর্দায় বাংলা মিডিয়াম ধারাবাহিকে।

Back to top button