বাংলা সিরিয়াল

অরিন্দমের বিরুদ্ধে আসা বাল্যবিবাহের অভিযোগ খন্ডাতে পারলো না নোলক! নিজের জন্ম সালটায় নোলক ঠিকমত বলতে পারলো না রোহিনীকে? কোন দিকে মোড় নেবে গোধূলি আলাপ?

কিছুদিন আগেই স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক গোধূলি আলাপের একটি প্রোমো সোশ্যাল মিডিয়া ভাইরাল হয় যেখানে দেখানো হয় দ্বিতীয়বার বিয়ের পিঁড়িতে বসছে অরিন্দম নোলোক। সামাজিকভাবে ধুমধাম করে বিয়ে করছে দুজনে, তাদের পরিবারের সমস্ত সদস্যরা মিলে এই বিয়ের আয়োজন করেছে আর বাধ্য হয়ে ভাগ্যচক্রে বিয়ে করা অরিন্দম- নোলক‌ও এখন বর্তমানে একে অপরকে ভালোবেসে ফেলেছি যদিও তারা সেটা নিজেদের কাছে প্রকাশ করে না তবে আচার-আচরণ ব্যবহারে তা প্রকাশ পেয়ে যায় আর নোলকের শাশুড়ি মা তো সহজেই পুরো বিষয়টি ধরে ফেলেন যে নোলক মুখে যাই বলুক সে অন্তরে অরিন্দমের প্রতি দুর্বল। তাই তিনিই হোতা হয়ে দুজনের বিয়ের আয়োজন করেন।

এরপর গোধূলি আলাপ ধারাবাহিকের যে ধামাকাদার প্রোমো রিলিজ হয়েছে সেখানে দেখানো হচ্ছে যে, রোহিণীর চক্রান্তে নিজের স্ত্রী নোলককে দ্বিতীয় বার বিয়ে করার জন্য অ্যারেস্ট হলো অরিন্দম! দেখানো হয় যে, ধারাবাহিকের প্রোমোতে অরিন্দম বরবেশে আর নোলক বধূবেশে উপস্থিত হয়েছে। দুজনের শুভদৃষ্টি হবে এমন সময় রোহিনী এসে উপস্থিত হল,তার হাতে একটি কাগজ যেটি দেখিয়ে সে বলে নোলক এখনো নাবালিকা উকিল বাবু অরিন্দম একজন নাবালিকাকে বিয়ে করছে আর সেই অপরাধে গ্রেফতার করা হয় অরিন্দম কে। নোলক সেই সমস্ত অভিযোগ টাকে মিথ্যা বলে।ধারাবাহিকের প্রোমতে আরো দেখানো হয়েছিল যে, অরিন্দম বলে নোলকের কথা যদি সত্যি হয় তাহলে আদালতে তা সে প্রমাণ করবে।

সম্প্রতি ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে যে, নোলক‌ জোর গলায় রোহিনি কে বলে এই সমস্ত কিছু মিথ্যে। সে জানে গত বছরই তার বিয়ের বয়স হয়ে গেছে।তখন রোহিনী বলে তাহলে তোমার জন্ম সালটা বলো? প্রোমোতে দেখায় নোলক সেটা বলতে পারে না চুপ করে যায়। কীভাবে রোহিনীর এই মিথ্যে ষড়যন্ত্রের পাশ থেকে বেরোবে নোলক অরিন্দম? সেটাই এখন দেখার!

Back to top button