বাংলা সিরিয়াল

বড় বড় চোখ আর কপালে লাল টিপ পরে ‘আদ্যাশক্তি মহামায়া’ রূপে ফটোশুট সারলেন অভিনেত্রী শ্রুতি দাস, বিশেষ নজর কাড়লো অভিনেত্রীর পরনের ব্লাউজ

বাংলা ধারাবাহিক জগতের অন্যতম জনপ্রিয় এবং দর্শকদের পছন্দের অভিনেত্রী হলেন শ্রুতি দাস। ২০১৯ সালে প্রথম জি বাংলার ত্রিনয়নী ধারাবাহিকের হাত ধরে টেলিভিশন জগতে পা রেখেছিলেন শ্রুতি। এরপর স্টার জলসার দেশের মাটি ধারাবাহিকেও কেন্দ্রীয় চরিত্রে দেখা গিয়েছে তাকে।

দুই ধারাবাহিকেই দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছিলেন অভিনেত্রী। খুব কম সময়ের মধ্যেই সকলের মন জয় করে নিয়েছেন। বর্ধমানের কাটোয়ার সেই মেয়েটি আজ হাজার হাজার মানুষের প্রিয়। এছাড়াও আরো বিভিন্ন কারণে শ্রুতি ক্যামেরার লাইম লাইটে এসেছেন। নিজের চেয়ে বয়সে বেশ কয়েক বছরের বড় পরিচালক স্বর্নেন্দু সমাদ্দারের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার পর অনেক কথা হয়েছিল।

নিজের প্রেম জীবন নিয়ে কম বিতর্কের মুখে পড়তে হয়নি তাকে। এছাড়াও অভিনেত্রীর গায়ের কালো রংয়ের জন্য বহুবার সমালোচনা এবং ট্রোল করা হয়েছে তাকে। কিন্তু সবকিছুরই যোগ্য জবাব দিয়েছিলেন শ্রুতি। সকলের মুখে ঝামা ঘষে দিয়েছিলেন। তবে অভিনেত্রীর ভক্তরা অপেক্ষা করে আছেন কবে শ্রুতি আবার পর্দায় ফিরে আসবেন। কারণ দেশের মাটি ধারাবাহিক শেষ হওয়ার পর আর তাকে পর্দায় দেখা যায়নি। কিছুদিন আগে কালার্স বাংলার মহালয়ার অনুষ্ঠান দেবী দশমহাবিদ্যা তে কালী রূপে সেজে উঠেছিলেন শ্রুতি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by 🧿Shruti Das🧿 (@shrutidas_real)

এছাড়াও ফটোশুটের মাধ্যমে সোশ্যাল মিডিয়াতে মাঝে মধ্যেই ধরা দেন অভিনেত্রী। সম্প্রতি কিছুদিন আগেই শ্রুতি আনন্দবাজার পত্রিকার সঙ্গে একটি ফটোশুট করেছেন। মহালয়া তে ‘আদ্যাশক্তি মহামায়া’ রূপে সেজে উঠেছিলেন তিনি। ইতিমধ্যেই তার সেই সব ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল।

শ্রুতির পোস্ট করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে অভিনেত্রীর পরনে রয়েছে সুন্দর কাজ করা একটি সাদা শাড়ি, কোমরবন্ধনী, হাতে শাঁখা-পলা সাথে একটা করে চুরি, গলায় হার নাকে নথ, সিঁথিভর্তি চওড়া সিঁদুর,কপালে লাল টিপ, চোখে মোটা করে কাজল। এছাড়াও এই সবকিছুর মধ্যেও দর্শকদের সবচেয়ে বেশি আকর্ষণ করেছে শ্রুতির ব্লাউজ। কারণ জবা ফুল দিয়ে বিশেষ কায়দায় বানানো হয়েছিল সেই ব্লাউজ। প্রত্যেকেই অভিনেত্রীর এই রূপ দেখে মুগ্ধ। এই লুকে দর্শকদের থেকে অনেক প্রশংসা পেয়েছেন অভিনেত্রী।

Back to top button