বাংলা সিরিয়াল

ঐন্দ্রিলার অসাধারণ নাচ ইমোশনাল করে দিলো সৌরভ গাঙ্গুলী কে! দাদাগিরির মঞ্চে এসে অসাধারণ নৃত্য পরিবেশন করলেন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা, তার নাচ দেখে মুগ্ধ স্বয়ং বাংলার মহারাজ

আর মাত্র কয়েকটা এপিসোড, তার পরেই শেষ হয়ে যাবে বাংলার রিয়েলিটি শোয়ের জগতের সব থেকে বড় রিয়েলিটি শো দাদাগিরি। গত আটমাস ধরে জি বাংলার পর্দায় শনি-রবি ঠিক রাত সাড়ে নয়টায় শুরু হতো জনপ্রিয় এই রিয়েলিটি শো। বিগত নটি সিজন ধরে সৌরভ গাঙ্গুলীর সঞ্চালনায় এই রিয়েলিটি শো জমজমাট। প্রতিদিনই দাদাগীরির মঞ্চে উপস্থিত থাকেন সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে সেলিব্রিটিরা। মজার মজার গল্প এবং প্রশ্ন-উত্তর পর্ব চলতে থাকে।

সম্প্রতি দাদাগীরির মঞ্চে টেলিভিশনের ছোটপর্দার বিভিন্ন জনপ্রিয় মুখ উপস্থিত ছিল। তার মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা। যাকে নিয়ে এখন বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে খবর বেরোচ্ছে। তার অসম্ভব সাহসিকতার জন্য বারবার খবরের শিরোনামে উঠে আসছেন ঐন্দ্রিলা। ইতিমধ্যেই দুই দুইবার মারণ রোগ ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছিলেন ঐন্দ্রিলা। গত বছরে ডিসেম্বর মাসে সম্পূর্ণভাবে সুস্থ হয়ে ফিরেছেন অভিনেত্রী। সুস্থ হওয়ার পর প্রথমবার ক্যামেরার সামনে দিদি নাম্বার ওয়ান এর মঞ্চে হাজির হয়েছিলেন তারপরে আবার তাকে দেখা গেল জি বাংলা দাদাগিরির মঞ্চে। এখনো অব্দি ধারাবাহিককে ফেরেনি ঐন্দ্রিলা, কিন্তু খুব শীঘ্রই ফিরবেন টেলিভিশনের পর্দায় সেই আশ্বাস দিয়েছেন অভিনেত্রী।

সম্প্রতি দাদাগীরির মঞ্চে এসে নিজের জীবনের সেই সমস্ত কাহিনী সকলের সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছেন অভিনেত্রী। তার এই অসাধারণ সাহসিকতার জন্য উপস্থিত প্রত্যেকেই তাকে স্যালুট জানিয়েছেন তার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছে স্বয়ং সৌরভ গাঙ্গুলী। দাদাগীরির মঞ্চে এসে ঐন্দ্রিলা তারা অসাধারণ একটি নৃত্য পরিবেশন করলেন। অভিনয়ের পাশাপাশি নাচতে দারুণ ভালোবাসেন ঐন্দ্রিলা। ঐদিন দাদাগীরির মঞ্চে জনপ্রিয় ছবি খাদের অত্যন্ত জনপ্রিয় গান ‘অশ্বথামা’ র তালে নেচে উঠলেন অভিনেত্রী। দর্শক মহলে এই গানের জনপ্রিয়তা আকাশ ছোঁয়া। সৌরভ গাঙ্গুলীর এই গানটি অত্যন্ত প্রিয় এর আগেও তিনি জানিয়েছেন সময় সুযোগ পেলে এই গানটি শোনেন তিনি। এমনকি শুটিং শেষে বাড়ি যেতে যেতে গাড়িতে বসে তার এই গানটি শুনতে ভালো লাগে। আর সেই গানের সঙ্গে দাদাগীরির মঞ্চে অসাধারণ নৃত্য পরিবেশন করলেন ঐন্দ্রিলা শর্মা। তার নাচ দেখে স্বয়ং মহারাজা প্রশংসায় পঞ্চমুখ। কাছে টেনে তাকে বাহবা জানিয়েছেন। সকলেই তার নাচ দেখে ইমোশনাল হয়ে পড়েছিলেন কারণ গানটি সঙ্গে ঐন্দ্রিলার জীবনের অনেকটা অংশই মিল খায়।

টানা কয়েক মাস মারণ রোগের সঙ্গে অসম্ভব লড়াই করে জীবন যুদ্ধে জয়ী হয়েছেন ঐন্দ্রিলা সেই সময় পাশে ছিল তার পরিবার এবং প্রেমিক সব্যসাচী চৌধুরী। মানসিক এবং শারীরিক দুইভাবেই ভেঙে পড়েছিলেন তখন ঐন্দ্রিলা সবসময় পাশে পেয়েছেন প্রেমিক সব্যসাচীকে। বাবার মতই আগলে রেখেছিল ঐন্দ্রিলাকে সব্যসাচী। অসংখ্য মানুষের প্রার্থনা, ভালোবাসায় ঐন্দ্রিলা ফিরে এসেছে মারণ রোগ কে হারিয়ে। এবার শুধু টেলিভিশনের পর্দায় কবে ফিরবেন অভিনেত্রী সেটার অপেক্ষায় রয়েছে দর্শকেরা।

এখানে ক্লিক করে ভিডিওটি দেখুন 

Back to top button