বাংলা সিরিয়াল

পিলু ধারাবাহিকে আসছে বড় টুইস্ট! স্বমহিমায় ফিরছে বিন্দি, আবারো মাথার ওপর খাড়া রঞ্জার, তবে কী টিআরপি ফেরাতে নতুন মোড় ধারাবাহিকে?

জি বাংলার পর্দার অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক হলো “পিলু”। তবে ধারাবাহিকের জনপ্রিয়তা যে এখন অতটা নেই সেটা বোঝাই যায় টিআরপি লিস্টের দিকে দেখলে। এটাও শোনা গিয়েছিল যে টিআরপি রেটিংয়ে টিকে থাকতে পারছে না এই ধারাবাহিক। তাই হয়তো খুব তাড়াতাড়ি বন্ধ হয়ে যেতে পারে। তবে এত সবকিছুর মাঝে ধারাবাহিকের মোড় ঘোরানো হচ্ছে। আনা হচ্ছে নতুন কিছু টুইস্ট।

আমরা সকলেই জানি ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্র পিলুর থেকে বেশি জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন রঞ্জা এবং মল্লার। তাদের কাহিনী বেশ পছন্দ করেন দর্শক মহল। শুধু পছন্দ করে বলা ভুল হবে পিলুর থেকে বেশি তারা এই পার্শ্ব চরিত্রের রোমান্স দেখতেই পছন্দ করেন। ধারাবাহিকের সবেমাত্র সমস্ত বাঁধা কাটিয়ে সাংসারিক জীবন শুরু করেছেন তারা। এসবের মাঝেই আবার এসে হাজির তাদের পুরনো শত্রু। ভালোবাসার কাঁটা হয়ে এসেছে বিন্দি।

ধারাবাহিকে এখন দেখানো হচ্ছে রঞ্জা এবং মল্লার রয়েছে কলকাতার বাড়িতে। যদিও সেখানেও তাদের শান্তিতে সংসার করার কোন জো নেই। কাজের লোকের ছদ্মবেশে তাদের বাড়ির ভেতর ঢুকে গিয়েছে বিন্দি। তবে এবার সে চেষ্টা করছে বড়সড় ক্ষতি করার রঞ্জা এবং মল্লারের। একবার চেষ্টা করছে মল্লারকে প্রাণে মেরে ফেলার। আরেকবার চেষ্টা করছে রঞ্জার কোন বড়সড়ো ক্ষতি করতে।

সকলে মিলে বাড়িঘর পরিষ্কার করার কাজ শুরু করে তারা। কিন্তু সেখানেও সমস্যা তৈরি করে বিন্দি। ঘরবাড়ি পরিষ্কার করতে গিয়ে মাথায় আঘাত পেল রঞ্জা। ঘর পরিষ্কার করতে গিয়ে পাখার স্ক্রু খুলে দেয় বিন্দি। জল খেতে গিয়ে রঞ্জা, বুঝতে পারে যে পাখার স্ক্রু খোলা আছে। তখন সে মল্লারকে টেনে সরিয়ে নেয়। কিন্তু মল্লারকে বাঁচাতে গিয়ে তার মাথায় চোট লাগে। তবে বড়সড় বিপদ থেকে বাঁচে দুজনই।

আবার নতুন করে পরিকল্পনা করেছে বিন্দি। সকলকে একবারে মেরে দেওয়ার জন্য বিষাক্ত বিষ নিয়ে এসেছে সে। অন্যদিকে মল্লারকে মারার জন্য স্নানের জলে ইলেকট্রিক তারও ডুবিয়ে রেখেছে সে। বিন্দির এসব ষড়যন্ত্র থেকে এখন কিভাবে বাঁচবে রঞ্জা এবং মল্লার? পরবর্তী এপিসোড উত্তর দেবে তার।

Back to top button