বাংলা সিরিয়াল

মিঠাই এবং সিদ্ধার্থ কে মিলিয়ে দেওয়ার প্ল্যানে এবারে হল্লা পার্টির সঙ্গে সামিল হলো দাদাই

বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরেই মিঠাই ধারাবাহিকের গল্পে এসেছে আমূল পরিবর্তন। সিদ্ধার্থের মৃত্যুর পর সবটাই ওলট-পালট হয়ে গেছে। মোদক পরিবারে নেমে এসেছে ঝড়, মিঠাইয়ের জীবনের সিদ্ধার্থের অনুপস্থিতি আর মেনে নিতে পারছে না দর্শকেরা। এদিকে সিদ্ধার্থ অ্যাক্সিডেন্ট এর পর রিকি দা রকস্টার হিসেবে আত্মপ্রকাশ ঘটেছে তার। ধারাবাহিকের গল্প অনুযায়ী সিদ্ধার্থের কিছুই মনে নেই। কিন্তু আসলে সবটাই মনে আছে তার। কে মোদক পরিবারের ব্যবসায় ক্ষতি করতে চায় সেটা ধরার জন্যই ছদ্মবেশে রয়েছে সিদ্ধার্থ। কিন্তু সিদ্ধার্থ হোক রিকি মিঠাই এর প্রতি ভালবাসাটা একই রকম রয়ে গেছে। এদিকে মিঠাইয়ের বিশ্বাস যে রিকিই আসলে তার উচ্ছে বাবু। অন্যদিকে দাদু চেষ্টা করে যাচ্ছে সমানে কিভাবে মিঠাই এবং সিদ্ধার্থ কে এক করা যায়। আর মোদক পরিবারের সকলে চাইছে মিঠাই এবং রিকি দা রকস্টার এর নতুন প্রেমের কাহিনী শুরু হোক।

রিকি দা রকস্টারের বেশে সিদ্ধার্থ ধারাবাহিকে থেকে আসার পর জানা যায় যে তার একটি গার্লফ্রেন্ড রয়েছে। যার নাম প্রিয়াঞ্জলি। এইদিকে সিদ্ধার্থ যাতে মিঠাইয়ের কাছে পৌঁছাতে না পারে তার জন্য নানান ধরনের ষড়যন্ত্র করে চলেছে প্রিয়াঞ্জলি। অন্যদিকে হল্লা পার্টি এবং দাদু মিলে চেষ্টা করে যাচ্ছে মিঠাই এবং সিদ্ধার্থকে আবার মিলিয়ে দেওয়ার।

অন্যদিকে দাদু ঠিক বুঝতে পেরেছে সিদ্ধার্থ রিকি দা রকস্টার হয়ে গেলেও মিঠাই এর প্রতি টান তারা এখনও কমেনি। হল্লা পার্টির সঙ্গে প্ল্যান করে রিকি বাড়িতে সকলে মিলে গিয়েছে ডিনার করতে এবং সেখানে গিয়েই সিদ্ধার্থ এবং মিঠাই কে আরো কাছাকাছি আনার চেষ্টা করছে প্রত্যেকে। আগের মতো সিদ্ধার্থ এবং মিঠাই কে মিলিয়ে দেওয়ার প্রচেষ্টা সকলের। কিন্তু এত তাড়াতাড়ি সিদ্ধার্থ ধরা দেবে না বোঝা যাচ্ছে রিকি দা রকস্টারের ভূমিকা আরো কিছুটা সহ্য করতে হবে দর্শককে। তবে খুব শীঘ্রই সিদ্ধার্থ এবং মিঠাই যে কাছাকাছি আসবে সেটা বোঝা যাচ্ছে।

Back to top button