বাংলা সিরিয়াল

অবশেষে পর্দা ফাঁস হয়ে গেলো রিনির! সবার সামনে মুখ খুলে দিলো উর্মি, সামনে এলো এই পথ যদি না শেষ হয় ধারাবাহিকের নতুন প্রোমো ভিডিও, টানটান উত্তেজনা পর্ব

বর্তমানে জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক গুলির মধ্যে অন্যতম একটি হলো এই পথ যদি না শেষ হয়। ধারাবাহিক শুরুর মাত্র কয়েক মাসের মধ্যেই এই ধারাবাহিক দর্শকের কাছে অত্যন্ত প্রিয় হয়ে উঠেছে। উর্মি এবং সাত্যকির জুটি দর্শকের নজর কেড়েছে। ছোট ছোট ধাপ অতিক্রম করে টিআরপি তালিকায় নিজেদের জায়গা করে নিচ্ছে এই ধারাবাহিক। ধারাবাহিকে দর্শকের আকর্ষণ বাড়ানোর জন্যই নিত্যনতুন টুইস্ট যোগ করা হয়েছে।

বছর শুরুতে এই ধারাবাহিকে দেখানো হয়েছে সরকার বাড়িতে নেমে এসেছে বিপদের কালো ছায়া। উর্মির মামনি এবং কাকা মিলে সাত্যকির বিরুদ্ধে নোংরা ষড়যন্ত্র করেছে। মিথ্যে শ্লীলতাহানি অভিযোগে সাত্যকিকে জেলে পাঠিয়েছে তারা। আর সাত্যকির এই বিপদের দিনে তার সামনের ঢাল হয়ে দাঁড়িয়েছে উর্মি। যেকোনো পরিস্থিতিতেই নিজের স্বামীকে রক্ষা করার প্রাণপণ চেষ্টা করে যাচ্ছে সে। এই মিথ্যা অভিযোগের কারণে সাত্যকি মানসিকভাবে একেবারে ভেঙে পড়েছে। উকিল এবং মিথ্যা সাক্ষ্য সাজিয়ে সাত্যকি র এর বিরুদ্ধে চক্রান্ত করেই চলেছে উর্মির মামনি এবং কাকা মিলে।

সম্প্রতি ধারাবাহিকে দেখানো হয়েছে সাত্যকির হয়ে কোন উকিল আদালতে লড়াই করতে চাইছে না। তারজন্য উর্মি নিজেই সাত্যকির হয়ে লড়ছে আদালতে। আর সেখানেই অভিজ্ঞ উকিলের নাকের ডগা দিয়ে সাত্যকি কে করে বাড়িতে ফিরিয়ে নিয়ে যায় সে। আর এই খবর উর্মির মামনি এবং কাকার কানে যাওয়া মাত্রই সকলে মিলে চেষ্টা করে উর্মিকে আটকানোর এবং উর্মিকে গুন্ডা দিযে কিডন্যাপ করায়। কিন্তু সেখানে উর্মিকে আটকে রাখতে পারেনি তারা। গুন্ডাদের চোখে আরশোলা মারার স্প্রে দিয়ে পালিয়ে আসে উর্মি এবং জোগাড় করে আনে যোগ্য প্রমাণ। নিষিদ্ধ পল্লীর বেশকিছু বাসিন্দাকে নিয়ে আসে উর্মি। যারা মোনাকে খুব ভালোমতো চেনো। তবু সাত্যকিকে সঠিক প্রমাণ করতে পারে না সে। তার উল্টো দিকের উকিল আরো একজন সাক্ষীকে নিয়ে আসবে বলে আদালতের কাছে সময় চেয়ে নেন। আর সেই অনুযায়ী গল্পের নতুন পর্বতে দেখানো হয়েছে আদালতে আগামী সাক্ষ্য হিসেবে উর্মির বিপরীতে উকিল রিনিকে নিয়ে আসে। রিনি হলো সাত্যকির ছাত্রী এবং তাদেরই পাড়ার একজন মেয়ে ছোট থেকেই সাত্যকির বাড়িতেই মানুষ হয়েছে।

এবার সামনে এলো ধারাবাহিকের নতুন প্রোমো ভিডিও। সেই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে সরকার বাড়ির সকলে তাকে ঘিরে ধরেছে। মিথ্যে কথা বলার জন্য সকলেই তাকে জেরা করতে থাকে। আর উর্মি এসে সপাটে থাপড় মারে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Swornendu Samaddaar (@iswarna)

Back to top button