বাংলা সিরিয়াল

‘অনামিকার বদলে সৃজলাকে জিনির চরিত্রে নিলে বেঙ্গল টপার হতো লালকুঠি’-অনামিকা চক্রবর্তীকে নিয়ে ট্রোল করায় এক অনামিকা ভক্ত উচিত জবাব দিলেন সমালোচকদের!

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক লালকুঠি। রহস্য রোমাঞ্চধর্মী এই ধারাবাহিক সবদিক থেকেই অভিনব। এই ধারাবাহিকের গল্পে রীতিমতো একটা আলাদা আমেজ আছে যা অন্য গল্পে নেই। কারণ এই গল্পে রহস্য রোমাঞ্চ দেখানো হয় যা যে কোনো বইপ্রেমী দের কাছে অত্যন্ত একটা সুখবর আবার এই ধারাবাহিক এত জনপ্রিয় হওয়া সত্ত্বেও ঠিকমতো টিআরপি পায় না এটা সত্যিই একটা খারাপ ব্যাপার।

কিছু দর্শক এই বিষয়টা নিয়ে বেশ বিরক্ত তারা বলেন এক অংশের মানুষ সব সময় দাবি করেন যে তারা পরকীয়া, শাশুড়ি বউয়ের কূটকাচালী দেখতে দেখতে ক্লান্ত! কিন্তু যখন এই অংশের মানুষদের কথা ভেবে নতুন কোন ধারাবাহিক আনা হয় যেমন পান্ডব গোয়েন্দা বা লালকুঠি তখন সেই ধারাবাহিক সেভাবে টিআরপি পায় না। তখন ঘুরেফিরে প্রশ্ন ওঠে তাহলে কি মানুষ সেই একই রকম পারিবারিক ড্রামা দেখতে পছন্দ করেন আর সেই কারণেই ভিন্ন ধর্মী গল্পগুলো আর আমাদের সামনে আসে না? দর্শকদের একটা অংশ এ নিয়ে রীতিমতো সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোচনা করেন। এর পাশাপাশি কোন চরিত্রে কাকে মানাবে তা নিয়েও আলোচনা ওঠে।

দর্শকদের এক অংশের মানুষ বলেন লালকুঠি ধারাবাহিকে নকল অনামিকা সেজে যে অনামিকা চক্রবর্তী এসেছে সেটা লালকুঠির জন্য ভীষণ ভালো হতে চলেছে। কারণ এর আগে উড়ন তুবড়ি ধারাবাহিকটি সেইভাবে স্লট পেতো না, কিন্তু যখন দেখা গেলো যে, এই ধারাবাহিকে অনামিকা চক্রবর্তী এলো তখন থেকে এই ধারাবাহিকটা জনপ্রিয় হতে শুরু করল। দর্শকদের এই অংশের মানুষ মনে করেন অনামিকা চক্রবর্তী যে কোনো ধারাবাহিকের জন্য বেশ লাকি। তারা নকল জিনির চরিত্রে অনামিকা কে দেখে বেশ খুশি হয়েছেন।

কিন্তু অপর অংশের মানুষ অনামিকাকে মোটেই পছন্দ করছেন না তারা অনামিকাকে নিয়ে ট্রোল করছেন, তাদের উদ্দেশ্য করে এক নেটিজেন সম্প্রতি লেখেন,“হেটারস দের কথা অনুযায়ী ফ্লপ অনামিকাকে কেন নিল জিনী চরিত্রে?যেখানে এত ভালো‌ বেঙ্গল টপার সিরিয়ালের নায়িকা ছিল?
সবদিক থেকেই এই চরিত্রে বেস্ট আমাদের সৃজু!
তাই অনামিকাকে পাল্টে ওই চরিত্রে সৃজলাকে দেওয়া হোক!
বেঙ্গল টপার কনফার্ম
নাহলে বয়কট করবো লালকুঠি ”

Back to top button