বাংলা সিরিয়াল

দেবী সাবিত্রীর আখ্যান নিয়ে শুরু হচ্ছে সাবিত্রী মায়ের ব্রতকথা! আকাশ আটের এই আধ্যাত্মিক গল্পে খুশি যুবসমাজ!

আকাশ আটের একটি জনপ্রিয় আধ্যাত্মিক অনুষ্ঠান হলো ‘মেয়েদের ব্রতকথা’। এখানে মেয়েদের বিভিন্ন রকম ব্রতকথাকে গল্পের আকারে দেখানো হয়। এইবার আকাশ আটের এই আধ্যাত্মিক চ্যানেলে সাবিত্রী মায়ের ব্রতকথা দেখানো হবে।বিয়ের পরেই সত্যবানের জীবনে মৃত্যু আশঙ্কা ঘনিয়ে আসে তখন রাজকুমারী সাবিত্রী তার স্বামী সত্যবানকে মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরিয়ে আনে দেবী সাবিত্রীর ব্রত করে।

মহাভারতের বনপর্বের গল্প এটি। যেখানে দেখা গিয়েছিল যে, ব্রহ্মার স্ত্রী তথা সূর্য পুত্রী দেবী সাবিত্রীর আশীর্বাদে সাক্ষাৎ মৃত্যুর মুখ থেকে নিজের স্বামীকে ফিরিয়ে এনেছিলেন রাজকুমারী সাবিত্রী, সেই থেকে সতী সাবিত্রীর আখ্যান প্রচলিত হয়ে উঠেছে আমাদের সংসারে। ঠিক যেমন ভাবে আমাদের সমাজে যখনই অধর্ম বেড়ে যায় তখন দুষ্টের বিনাশ করবার জন্য পূণ্যাত্মাদের রক্ষা করবার জন্য এবং ধর্মের পুনস্থাপনের জন্য ভগবান বিষ্ণু আবির্ভূত হন, ঠিক তেমন ভাবেই যখন সমাজে সতীকে অসম্মান করা হয় তখন দেবী সাবিত্রীল আশীর্বাদে কোথাও না কোথাও সতী নারীর জন্ম হয়।

সেই সতী নারী পৃথিবীতে পুনরায় সতীত্বকে প্রতিষ্ঠা করে, জগতকে পুনরায় মনে করিয়ে দেয় সতী নারীর থেকে বড় কোন শক্তি পৃথিবীতে নেই। তাই দেবী সাবিত্রীর আশীর্বাদে সাবিত্রীগড়ে জন্ম নেয় লাবণ্য। বিয়ের এক বছরের মধ্যে তার স্বামী মৃত্যু মুখে পতিত হবে এটাই বিধির বিধান, কিন্তু সতীত্বের তেজে জীবনের নানা ঝড় ঝাপটাকে উপেক্ষা করে বরের প্রাণ রক্ষা করে সমাজের মধ্যে দেবী সাবিত্রী ব্রত মাহাত্ম্যের কথা আবার‌ও প্রতিষ্ঠা করে লাবণ্য।

আকাশ আটের এই মেয়েদের ব্রত কথা নামক আধ্যাত্মিক অনুষ্ঠানটি দর্শকদের খুব পছন্দের, কারণ এই অনুষ্ঠানটির মাধ্যমে আধ্যাত্মিক বাণী ছড়িয়ে যায় যুব সমাজের মাঝে।

Back to top button