বাংলা সিরিয়াল

নবাব নন্দিনীর কাছে স্লট হারাতেই আহির পিলুকে গুরুত্ব দিতে শুরু করলেন পিলু ধারাবাহিকের নির্মাতারা! বিন্দি খুনের রহস্যের সমাধান থেকে শুরু করে অপরাধী গ্রেপ্তার সবেতেই পিলুকে ছাড়া রঞ্জা অসহায়! বলছেন দর্শকরা

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক পিলু। এই ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্র আহির আর পিলু হলেও বর্তমানে দুই খল চরিত্র রঞ্জা এবং মল্লারকে অধিক গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। তাদের সম্পর্কের ইকুয়েশন, তাদের দুজনের কাছাকাছি আসা, তাদের মধ্যেকার ভুল বোঝাবুঝি, তাদের মধ্যে কার দূরত্ব ইত্যাদি বিষয়গুলি বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে এই ধারাবাহিকে। যা অধিকাংশ পিলু ভক্তের পছন্দ নয়। কারণ তারা এই ধারাবাহিকে পিলু এবং আহিরকে মুখ্য হিসেবে দেখতে চান।

সেই পিলু ভক্তদের কথা ভেবেই এসেছে সাম্প্রতিক কালের প্রোমো, যে প্রোমো বলছে আহির, পিলুর গুরুত্ব আবার ফিরে আসছে ধারাবাহিকে। বর্তমানে এই ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে যে বিন্দিকে খুনের দায় মল্লারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মল্লার জানাচ্ছে সে নির্দোষ,সে খুন করেনি। যদিও পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছে।

অন্যদিকে রঞ্জা মৃত বিন্দিকে বিভিন্ন জায়গায় দেখতে পাচ্ছে বিষয়টাকে সবাই হেসে উড়িয়ে দিল পিলুর মাথা থেকেই রহস্য উদঘাটন হলো। সেই প্রথম সবার সামনে বলল এমনটা তো হতেই পারে পুলিশ যাকে বিন্দির মৃতদেহ বলে শনাক্ত করছে সেটা আসলে বিন্দির মৃতদেহ নয়। এরপর দেখা যায় যে, আহির আর পিলু মিলে রহস্য সমাধানের জোর চেষ্টা করছে। রীতিমতো বুদ্ধি খাটিয়ে সাহায্য করছে সে রঞ্জাকে।

সাম্প্রতিককালে পিলু ধারাবাহিকের যে প্রোমো বেরিয়েছে সেখানে দেখা যাচ্ছে যে রঞ্জা অ্যাসাইলামে ভর্তি হয়েছে তখন বিন্দি সেখানে ছদ্মবেশে এসে বলছে আরে রঞ্জা বেহেন তুমি যে সত্যি সত্যি পাগল হয়ে গেছো! তখন সে চলে গেলে রঞ্জা পিছন থেকে বিন্দির পিঠে হাত দিয়ে বলে, বিন্দি বেহেন তুমি রঞ্জার পাতা ফাঁদে পা দিয়েছো। এরপর দেখা যায় পুলিশ নিয়ে হাজির হচ্ছে আহির আর পিলু- অর্থাৎ রহস্য সমাধান থেকে শুরু করে অপরাধীকে গ্রেপ্তারে দেখানো হচ্ছে আহির পিলুকে, দর্শকরা মনে করছেন আস্তে আস্তে আহির পিলুকে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে, একসময় যেখানে পিলুকে শুধুমাত্র দরজা খুলবার জন্য রাখা হতো সেখানেই যে পিলু বুদ্ধি খাটিয়ে একটার পর একটা উপায় বাতলাচ্ছে, এতে বোঝা যাচ্ছে পিলুর বুদ্ধি ছাড়া রঞ্জা অচল।

দর্শকদের একাংশের মানুষ আবার বলছেন, নবাব নন্দিনীর কাছে পিলু স্লট হারাতেই পিলু আহিরকে গুরুত্ব দিতে শুরু করছে ধারাবাহিকের নির্মাতারা। একেই হয়তো বলে ঠেলায় না পড়লে বিড়াল গাছে ওঠে না।

Back to top button