বাংলা সিরিয়াল

বরণের তিথির মতোই নিজের জীবনের লক্ষ্য ভুলে নন্দিনী শ্বশুরবাড়ির সমস্যা সমাধানে লেগে গেছে! নন্দিনীর কর্ম ক্ষেত্র আর দেখানো হচ্ছে না! সব ধারাবাহিকে ঘুরে ফিরে সেই একই গল্প দেখানো হচ্ছে-বিরক্ত হয়ে যাচ্ছেন দর্শকরা!

স্টার জলসার একটি জনপ্রিয় ধারাবাহিক নবাব নন্দিনী। অল্প কিছুদিন হল এই ধারাবাহিক শুরু হয়েছে, কিন্তু এরই মধ্যে এই গল্পের মধ্যে দর্শকরা একটি চির পরিচিত গল্পের আঁচ খুঁজে পাচ্ছেন। নবাব নন্দিনী গল্পের নন্দিনীর ভূমিকায় যিনি অভিনয় করছেন সেই ইন্দ্রানী পাল এর আগে স্টার জলসার আরেকটি জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘বরণ’-এ অভিনয় করেছিলেন।

সেই বরণ ধারাবাহিকে দেখা গিয়েছিলো যে, তিথি বলে একটি মেয়ে যে ভীষণ এডুকেটেড, যে নিজের পায়ে দাঁড়াতে চায়, পড়াশোনা করতে চায়, চাকরি করতে চায়, সেই মেয়েটির রাতারাতি বিয়ে হয়ে যায় এবং বিয়ের পর সে পুরো বদলে যায়। যে মেয়েটির একটি হাই এমবিশন ছিল তার হাই এমবিশন বদলে যায় বিয়ের পর।

বিয়ের পর তার একটাই লক্ষ্য হয়ে দাঁড়ায় তা হলো, শ্বশুর বাড়ির সকলের মন জয় করা, শ্বশুর বাড়ির যে কোনো সমস্যার সমাধান করা ও সকলের বিপদে পাশে এসে দাঁড়ানো এরপর শ্বশুর বাড়ির পারিবারিক ব্যবসার মধ্যে এসে ঢুকে পড়ে এবং সেই ব্যবসার হাল ধরে কিন্তু তার চাকরি করার স্বপ্ন তার গোল হারিয়ে যায়।

সাম্প্রতিক কলেজ স্টার জলসা নবাব নন্দিনী ধারাবাহিক একই রকম গতিতে এগোচ্ছে নন্দিনীর জীবনের অনেক বড় স্বপ্ন ছিল সে চাকরি করবে বড় হবে অনেক অনেক প্রতিষ্ঠিত হবে কিন্তু বর্তমানে সেই সমস্ত স্বপ্ন জলে ভেসে গেছে তার এখন একটাই চেষ্টা তা হলো নবাবের বাড়ির সকলের মন জয় করা এবং এই বাড়ির বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করা। কিছুদিন আগে একটি এপিসোডে দেখা গিয়েছিল বিভিন্ন রকমের পদ রেঁধে পরিবারের সকলের সামনে রাখছে সে এবং বাড়ির সবার মন জয় করছে সে।

সম্প্রতি দেখা যাচ্ছে নবাবের রেজিস্ট্রি করা চিঠি সে হারিয়ে ফেলেছে। এরপর নবাব ভীষণ রেগে গেছে তার ওপর। যদিও এই সবটাই নবাবের বড় বৌদি কমলিকা করিয়েছে। কিন্তু এইবার নন্দিনী কিভাবে নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করবে কিভাবে নবাব কে সমস্যার থেকে মুক্তি দেবে এই সবই দেখানো হবে ধারাবাহিকে। দর্শকরা বলছেন, ঘুরিয়ে ফিরিয়ে ধারাবাহিকে একই জিনিস দেখানো হচ্ছে। নন্দিনীর যেন ব্যক্তিগত কোন জীবন নেই, কোন কর্মক্ষেত্র নেই, শ্বশুরবাড়ির মন জয় করায় তার উদ্দেশ্য।

Back to top button