বাংলা সিরিয়াল

কিঞ্জল ও সবার সামনে নিজেকে সাপরূপে দেখে মানসিকভাবে বিধ্বস্ত হয়ে পরলো পঞ্চমী! ভয়ে গুটিয়ে গেল সে! এইবার কি কিঞ্জলের হাতেই হবে তার মৃত্যু?

স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক হলো পঞ্চমী। এই ধারাবাহিকে দেখা যাচ্ছে যে পঞ্চমী এতদিন পর্যন্ত নিজের আসল পরিচয় কি সেটাই জানতে পারে নি। কিন্তু ইচ্ছাধারী নাগিন থেকে শুরু করে নাগমাতা প্রত্যেকেই তাকে বারবার দেখা দিত এবং তার স্বরূপ দেখাবার চেষ্টা করতো। কিন্তু পঞ্চমী সেটা বুঝতে পারেনি তাই পূর্ণিমা রাত্রে তাকে বাড়ির বাইরে বের করে আনেন অন্যান্য নাগিনরা এবং নাগ মাতা মিলে। তারপর চাঁদের আলোয় সে সাপে রূপান্তরিত হয়।

পঞ্চমী চিৎকারের আওয়াজে যখন কিঞ্জল এবং অন্যান্যদের ঘুম ভেঙ্গে যায় তখন তারা ছাদে উঠে দেখে ছাদে একটা সাপ আছে। কিন্তু কিঞ্জল তো বুঝতে পারে না এই সাপ আসলে পঞ্চমী। তাই সে লাঠি দিয়ে সাপটিকে মারতে যায় আর পঞ্চমী বুঝতে পারেনা সে কি করবে সে সাপ হয়ে গুটিয়ে পড়ে ছোবল দেওয়ার কথা তো দূর সে পালানোর কথাও ভুলে যায়। কারণ নিজের পরিচিতি নিজের পরিচয় কেই সে একসেপ্ট করতে পারছে না

সোশ্যাল মিডিয়ায় একজন নেটিজেন এই নিয়ে লিখেছেন,“যখন এপিসোডের প্রতি আকৃষ্ট হওয়ার প্রিকেপ এর কথা তখন আজকের পঞ্চমীর প্রিকেপ যথেষ্ট আকর্ষণীয়।

পঞ্চমীর অবস্থান থেকে সে একদম ঠিক আছে।হটাৎ করেই যখন মানুষের মধ্যে অন্য এক প্রজাতির রূপ ভেসে উঠবে তখন তার মানুসিকভাবে বিপর্যস্ত হবারই কথা।আবার এই প্রথম বারেই এক্কেবারে সবার সামনে সাপ রূপে দেখলো,এটা যে পঞ্চমী সেটা বোঝেনি তবে এখন সবার সামনে সাপ রূপে তার কাজ টা কি ,কি করবে কিছুই হয়তো বোঝতে পারছেনা বেচারা।
দর্শক টানার জন্য মোক্ষম একটা প্রমো হতো এই ট্রাকটা
এখন দেখার পালা কিঞ্জল কি করে আর পঞ্চমীর অবস্থায় বা কি হয়!”

Back to top button